স্কাইপের বিকল্প মেগাচ্যাটমেগাচ্যাট !

স্কাইপের বিকল্প মেগাচ্যাটমেগাচ্যাট !
মেগাচ্যাটমেগাচ্যাট নামে মাইক্রোসফটের স্কাইপের প্রতিদ্বন্দ্বী সেবা তৈরি করেছেন নিউজিল্যান্ডের ইন্টারনেট উদ্যোক্তা কিম ডটকম। গতকাল বৃহস্পতিবার এনক্রিপটেড এ চ্যাট সেবাটি উন্মুক্ত করার ঘোষণা দেন তিনি। এক খবরে এ তথ্য জানিয়েছে
মেগাচ্যাট (https: //mega. nz/#) সেবাটি ধীরে ধীরে উন্মুক্ত করা হবে। শুরুতে পরীক্ষামূলকভাবে ভিডিও কল সেবা হিসেবে এটি উন্মুক্ত করা হচ্ছে।
টুইটারে মেগাচ্যাট উন্মুক্ত করার বিষয়টি তিনি টুইটারে পোস্ট করেন। তিনি বলেন, ‘মেগাচ্যাট বিশেষ এনক্রিপশন প্রযুক্তি দিয়ে ব্যবহারকারীকে নিরাপত্তা দেবে। এ সাইটে কোনো নিরাপত্তা ত্রুটি জানলে আমাদের অবহিত করুন। আমরা আপনাদের পুরস্কৃত করব।’

নিউজিল্যান্ডের উদ্যোক্তা কিম ডটকম মেগাচ্যাটকে স্কাইপের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে তৈরির ঘোষণা দিয়েছেনগত বছরের ডিসেম্বর মাসে মেগাচ্যাট উন্মুক্ত করার ঘোষণা দেন কিম। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার নজরদারি থেকে মাইক্রোসফটের স্কাইপ যখন ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা দিতে পারছে না,

তখন স্কাইপের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মেগাচ্যাট সুরক্ষিত সেবা দিয়ে যাবে বলে ঘোষণা দেন তিনি। স্কাইপের নিরাপত্তা নিয়ে যাঁরা উদ্বিগ্ন, তাঁদের জন্যই মেগাচ্যাট বিকল্প হবে বলে ঘোষণা দেন তিনি।

২০১২ সালের জানুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্র ফাইল শেয়ারিং সাইট ‘মেগা আপলোড’ বন্ধ করে দেওয়ার পর আলোচনায় আসেন কিম। ফাইল শেয়ারিং সার্ভিস মেগা আপলোডে অবৈধ ফাইল রাখার দায়ে কিম ডটকম গ্রেপ্তার হয়েছিলেন এবং সাইটটি বন্ধ করে দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।

নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে নিজের ম্যানসনে ২০১২ সালের জানুয়ারিতে সশস্ত্র অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। অবশ্য ২০১৩ সালেই আবার ‘মেগা’ নামে নতুন আরেকটি ক্লাউডভিত্তিক সেবা চালু করেন ইন্টারনেটভিত্তিক ওয়েবসাইটের উদ্যোক্তা কিম ডটকম। এরপর গত বছরের মার্চে ‘ইন্টারনেট পার্টি’ নামের একটি রাজনৈতিক দল গঠন করে নিউজিল্যান্ডে নির্বাচনে অংশ নেন।

Share This Post

Post Comment