পৃথিবীর কেন্দ্রের ব্যাপারে পাওয়া গেলো চমকপ্রদ তথ্য

পৃথিবীর কেন্দ্রের ব্যাপারে পাওয়া গেলো চমকপ্রদ তথ্য
পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের গবেষকদের একটি দল আবিষ্কার করেছেন পৃথিবীর কেন্দ্রেরও রয়েছে একটি কেন্দ্র। আর এই কেন্দ্রের রয়েছে অদ্ভুত সব বৈশিষ্ট্য।

এই দুইটি কেন্দ্র একে অপরের চাইতে অনেকটাই ভিন্ন। ধারণা করা হয় আমাদের এই গ্রহটির ইনার কোর বা ভেতরের কেন্দ্র নিরেট লোহা দিয়ে তৈরি। এই কেন্দ্রেরও যে কেন্দ্রটি আছে, তা পর্যবেক্ষণ করে পৃথিবীর ক্রমবিবর্তন সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যেতে পারে।

এই গবেষণার জন্য ইলিনয়ের কিছু গবেষক এবং চীনের নানজিং ইউনিভার্সিটির গবেষকেরা ভূমিকম্পের পর কিভাবে পৃথিবীর মধ্য দিয়ে সিসমিক ওয়েভ যায় তা পর্যবেক্ষণ করেন। ১৯৯২ এবং ২০১২ সালের মাঝে যত ভূমিকম্প হয় তা থেকে এসব তথ্য নেওয়া হয়। ভূমিকম্প থেকে মাটির উপাদান নির্ণয়ের ব্যাপারটি নতুন নয়। এর আগেও ভূপৃষ্ঠের কাছাকাছি এলাকায় এই পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে কিন্তু পৃথিবীর একেবারে কেন্দ্রে কি আছে তা বের করতে এই পদ্ধতি তারাই প্রথম ব্যবহার করলেন।

তাদের পাওয়া সিসমিক ডাটা বলছে, ইনার কোর এর ভেতর দিকে থাকা আয়রন ক্রিস্টালগুলো পূর্ব-পশ্চিমে মুখ করে থাকে। আবার ইনার কোরের বাইরের দিকে থাকা ক্রিস্টালগুলো উত্তর-দক্ষিণে মুখ করে থাকে। এ থেকে ধারণা করা যায় ইনার কোরের ভেতরেও আলাদা একটি কেন্দ্র আছে যা মোটামুটি ইনার কোরের অর্ধেক জায়গা জুড়ে থাকে। ইনার কোরের বিভিন্ন জায়গায় সিসমিক ওয়েভ ভিন্নভাবে যায় এটা আগেই খেয়াল করা হলেও এ থেকে ইনার কোরের যে কেন্দ্র আছে তা বোঝা যায়নি। ইনার কোরের ক্রিস্টালের চাইতে একেবারেই উল্টো এই কেন্দ্রের ক্রিস্টালগুলো। এ থেকে গবেষকেরা ধারণা করছেন অনেক বড় কোনো ঘটনা ঘটেছিলো যার ফলে ইনার কোরের বাইরের অংশের ক্রিস্টালের দিক নির্দেশনা উল্টে যায়।

Share This Post

Post Comment