হাতের মুঠোয় ভবিষ্যতের পানির বোতল

হাতের মুঠোয় ভবিষ্যতের পানির বোতল
গরমে গলা শুকিয়ে গেলে ভবিষ্যতেও কি মানুষ বোতল থেকে পানি পান করবে, নাকি বেছে নেবে অন্য কোনো উপায়? এই গোলাকার স্বচ্ছ গোলকটিই হতে পারে ভবিষ্যতে পানি ধারণের মাধ্যম।

লন্ডনের স্কিপিং রকস ল্যাবের উদ্ভাবন হলো এই পানির গোলক। অ্যালজি থেকে তৈরি জেল দিয়ে তৈরি করা হয় একে। এই পানি “পান করা” বা খাওয়ার জন্য এতে কামড় দিয়ে পানিটা শুষে নিতে হয় অথবা পুরো গোলকটিকে একেবারে গিলে ফেলতে হয়।
এসব গোলকের নাম দেওয়া হয়েছে Ooho! কারণ অনেক সময়ে এসব গোলক ফেটে যায় এবং কাপড় ভিজে যায়। অনেকেই ভাবতে পারেন এমন গোলক তৈরির ঝামেলায় যাওয়ার দরকার কি? এর কারণ হলো, প্লাস্টিক। সারা বিশ্বে প্লাস্টিকের বোতলে করে পানি পান করা হয়। এতে যেমন প্রচুর পরিমানে “প্লাস্টিক পলিউশন” হচ্ছে তেমনি তা আমাদের স্বাস্থ্যেরও ক্ষতি করছে। ২০১৫ সালের “Design to Improve Life” প্রতিযোগিতায় তাই নির্বাচন করা হয় এই Ooho! গোলক।

আমরা বোতলের পানি পান করে প্লাস্টিকের বোতলটি ফেলে দেই। ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে এই প্লাস্টিক আর রিসাইকেল করা হয় না ফলে বাড়তে থাকে বর্জ্য। এ সমস্যা থেকে বাঁচতে “স্ফেরিফিকেশন” পদ্ধতি ব্যবহার করে পানিকে একটি ডাবল জেলাটিনাস মেমব্রেনের মাঝে আটকে ফেলা হয়। এতে ব্যবহার করা হয় বাদামি শ্যাওলা থেকে তৈরি সোডিয়াম অ্যালজিনেট (E-401) এবং ক্যালসিয়াম ক্লোরাইড (E-509) যাতে বাইরের দিকে একটি জেলি জাতীয় পর্দা তৈরি হয়। যে কেউ সঠিক রেসিপি অনুসরণ করে তাদের রান্নাঘরেই এই Ooho! তৈরি করতে পারবেন এমনকি ইচ্ছে করলে নিজের ইচ্ছেমত পরিবর্তন করেও নিতে পারবেন। এর ফলে প্লাস্টিকের বোতল ব্যবহারের কুফল এড়ানো সম্ভব।

Share This Post

Post Comment