”মজাদার তন্দুরী মাশরুম”

”মজাদার তন্দুরী মাশরুম”

– মাশরুম অনেকেই খেতে পছন্দ করেন না। কিন্তু এই মাশরুমের পুষ্টিগুণ মাছের চেয়ে কিছু কম নয়। মাশরুম স্যুপ বেশ জনপ্রিয়। তন্দুরী মাশরুম, এই খাবারটি খেয়েছেন কখনও? তন্দুরী চিকেন খেয়েছেন, এমনকি অনেকে তন্দুরী চিংড়িও অনেকে রান্না করেন। এবার না হয় তন্দুরী মাশরুম রান্না করুন।

উপকরণ:

১৫-১৮ মাশরুম

২ টেবিল চামচ মাখন

২-৩ টেবিল চামচ বেসন

১ চা চামচ জিরা

১ টেবিল চামচ লাল মরিচ গুঁড়ো

১ চা চামচ শুকনো মরিচ

১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো

১ চা চামচ চাট মশলা

১ টেবিল চামচ আদা রসুনের পেস্ট

লবণ স্বাদমত

১ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো

গোলমরিচ গুঁড়ো

১ চা চামচ লেবুর রস

১ টেবিল চামচ কাস্মেরী লাল মরিচ গুঁড়ো

১/২ কাপ টকদই

১ চা চামচ তেল

প্রণালী:

১। প্রথমে একটি প্যানে তেল দিয়ে দিন।

২। তেলের মধ্যে বেসন এবং জিরা দিয়ে দিন। লক্ষ্য রাখবেন বেসন যেন না পুড়ে যায়।

৩। কিছুটা আঠালো হয়ে গেলে বেসন চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন।

৪। এরপর এতে আদা রসুনের পেস্ট, লেবুর রস, লাল মরিচের গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো, শুকনো লাল মরিচ, হলুদ গুঁড়ো, লবণ, গোল মরিচের গুঁড়ো, চাট মশলা, কাশ্মিরি লাল মরিচের পেস্ট এবং টক দই দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।

৫। তারপর মাশরুমগুলো মশলার মধ্যে ভাল করে মিশিয়ে নিন।

৬। এখন গ্যাস ওভেন তন্দুরীতে কিছুটা মাখন লাগিয়ে মাশরুম গুলো দিয়ে দিন।

৭। এরপর ঢাকনা দিয়ে উচ্চ তাপে ৪৫ মিনিট রান্না করুন।

৮। গ্যাস ওভেন তন্দুরী না থাকলে আপনি সাধারণ তাওয়া ব্যবহার করতে পারেন।

৯। ৪৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে মাশরুমগুলো উল্টিয়ে দিন এবং তার উপর মাখন ব্রাশ করে দিন।

১০। তারপর আবার ঢাকনা দিয়ে ৪৫ মিনিট রান্না করতে দিন।

১১। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মজাদার তন্দুরী মাশরুম।

Share This Post

Post Comment