বরই আচারের রেসিপি

বরই আচারের রেসিপি
এখনতো সময় বরইয়ের। পুষ্টিগুণ সম্পন্ন এই বরইগুলো শুধু কি কাঁচাই খাওয়া যায়? না আচার তৈরি করেও রাখা যায় অনেক দিন। আজকের আয়োজনে রয়েছে বরইয়ের রেসিপি
বরই আচারের রেসিপি রেশমি আচার
উপকরণ: পাকা বরই ১ কেজি, গুড় বা চিনি ১ কেজি, লবণ ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, শুকনো মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, সরিষা গুঁড়া ১ চা চামচ, পাঁচফোড়ন গুঁড়া আধা চা চামচ,সরিষার তেল আধা কাপ, ভিনেগার ১ টেবিল চামচ
প্রণালি: প্রথমে বরই ধুয়ে হালকা গরম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। আধা ঘণ্টা পর পানি থেকে তুলে বাতাসে পানি শুকিয়ে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে সব মসলা কষিয়ে বরই দিয়ে দিন। পরে গুড় বা চিনি ও ভিনেগার দিয়ে দিন। কষানো হলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে বয়ামে ভরে রাখুন।
শুকনো বরইয়ের ঝাল-মিষ্টি আচার
উপকরণ : শুকনো বরই ১ কেজি, চিনি  ৩৫০ গ্রাম, লবণ স্বাদমতো, সরিষার তেল ৫০০ মিলিলিটার, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, সুন কুচি ২ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ ৮টি, মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, পাঁচফোড়ন গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, জিরা ভেজে গুঁড়া করা ১ টেবিল চামচ, ভিনেগার ২৫০ মিলিলিটার
প্রস্তুত প্রণালি :শুকনো বরইগুলো আচার বানানোর আগের রাতে বোঁটা ফেলে দিয়ে ভালো করে ধুয়ে পানিতে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন বরইগুলো থেকে পানি ভালোভাবে ঝরিয়ে ফেলুন। শুকনো মরিচ ছাড়া বাকি সব মসলা একটি পাত্রে নিয়ে তাতে ভিনেগারটুকু ঢেলে ভালো করে মিশিয়ে নিন। একটি পাত্রে তেল নিয়ে চুলায় বসান। তেল গরম হয়ে এলে এতে সবটুকু মসলা দিয়ে দিন। এরপর এতে চিনি ও লবণ দিয়ে ভালো করে কষান। কিছুক্ষণ পর এতে শুকনো মরিচ ও বরইগুলো দিয়ে জ্বাল দিতে থাকুন। থকথকে হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন। আচার ঠাণ্ডা হলে বয়ামে তুলে ফেলুন। এই আচার বয়ামে সারা বছর সংরক্ষণ করে খাওয়া যাবে। চিনির পরিবর্তে গুড় দিয়েও এই আচার করা যায়। সেক্ষেত্রে গুড় আগেই গলিয়ে নেবেন।
বরই, তেঁতুল ও পেঁয়াজের আচার
উপকরণ : তেঁতুল ৫০০ গ্রাম, পেঁয়াজ ১ কেজি, শুকনো বরই ২৫০ গ্রাম, চিনি ২ কাপ, সরিষার তেল ১ কাপ, লবণ ১ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ ভাজা গুঁড়া ৫টি, জিরা ভাজা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, পাঁচফোড়ন গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, বিট লবণ ১ চা চামচ।
প্রণালি: তেঁতুল ভিজিয়ে নরম করে নিন। গোলা তেঁতুলের ক্বাথ রোদে দিন ১ দিন। পেঁয়াজ কুচি করে রোদে দিন ১ দিন। বরই পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ৬ ঘণ্টা। তেঁতুল, পেঁয়াজ একসঙ্গে মিলিয়ে আরো ১ দিন রোদে দিন। চিনি সিরা করে বরই দিয়ে জ্বাল দিন নরম না হওয়া পর্যন্ত। বরই নরম হলে তেঁতুলের সঙ্গে একে একে সব মেশান। আরো ১ দিন রোদে দিন।

Share This Post

Post Comment