শেভ করার সময়ে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন

শেভ করার সময়ে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন

সঠিক শেভ একজন পুরুষকে করে তোলে আরও আকর্ষণীয় এবং স্মার্ট। শেভ করার সময় তাই কিছু বিষয় খেয়াল রাখুন।

* সেক্ষেত্রে শেভ করার আগে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। ভালো করে মুখ পরিষ্কার করে নিন। এতে ময়লা দূর হয়ে রোমকূপগুলো উন্মুক্ত হবে। শেভ করতে সুবিধা হবে।

* একাধিক ব্লেডযুক্ত রেজর দিয়ে শেভ করুন। শেভিংয়ের সময় বেশি চাপ না দিয়ে হালকা স্ট্রোকে শেভ করুন।

* মুখে বেশি করে শেভিং জেল ব্যবহার করতে হবে। এতে মুখের ওপর ব্লেডের ঘর্ষণ প্রতিরোধী একটি স্তর তৈরি হবে এবং রেজর মসৃণভাবে মুখের ওপর ঘোরানো যাবে। ফলে মসৃণ ও আরামদায়ক শেভ করা সম্ভব।

* দাড়ি-গোঁফের অনুকূলে সহনশীল গতিতে রেজার টানবেন। গাল ও থুতনির কাছে ওপর থেকে নিচের দিকে এবং গলার দিকে একটু সতর্কতার সঙ্গে রেজ়ার টানবেন।

* দাড়ির উল্টো দিকে রেজ়ার না চালানোই ভালো। আর ত্বক শুকিয়ে গেলে টেট্রাসাইক্লিন যুক্ত আফটার শেভ লোশন ব্যবহার করুন।

* যদি রাতে সেভ করেন, তবে গ্লাইকোলিক অ্যাসিড যুক্ত অয়েনমেন্ট গালে, গলায় লাগাবেন।

* অনেকের মতে, নিয়মিত শেভ করলে সেনসেটিভ ত্বকের ক্ষতি হয়। তবে এর উপকারিতাও রয়েছে। প্রতিদিন নিয়ম করে শেভ করলে মরা কোষ ঝরে যায়। বাইরের ধুলোবাড়ির কারণে ত্বকে ময়লা জমে। দাড়ি না কাটলে,তা জমতে থাকে। তখনই ব্রণ, অ্যাকনের মতো সমস্যা দেখা যায়।

Share This Post

Post Comment