যে ১২টি জিনিসই “ভালোবাসা” ধরে রাখে আজীবন

যে ১২টি জিনিসই “ভালোবাসা” ধরে রাখে আজীবন

সম্পর্কটি প্রেমের হোক বা দাম্পত্য, যে কোন ক্ষেত্রেই একে আজীবন সতেজ রাখার একটি ব্যাপার আছে। সময়ের সাথে সাথে নর-নারীর সম্পর্ক ফিকে হয়ে যায় আর তাই একে জিইয়ে রাখতে করতে হয় হরেক রকম আয়োজন। না, জীবনের প্রতি ধাপে নাটকীয়তার কোন প্রয়োজন নেই। বরং সাধারণ জিনিসেই অটুট থাকে ভালোবাসার বন্ধন। জেনে নিন তেমনই ১২টি দিকের কথা।

১) সম্পর্কে সবার আগে চাই সততা। এই জিনিসটি ধরে রাখতে হবে যে কোন পরিস্থিতিতেই। মনযোগ আকর্ষণের জন্য হলেও কখনো মিথ্যার আশ্রয় নেবেন না।

২) দাম্পত্যে রোমান্স ফিকে হয়ে যায় কয়েক বছরের মাঝেই। কিন্তু কীভাবে ধরে রাখবেন একে? একটাই উপায়, পরস্পরের প্রতি ভালোবাসার প্রকাশ যেন কখনো বন্ধ না হয়। ভালোবাসা দিলে ভালোবাসা পাবেন।

৩) পরস্পরের প্রতি আস্থা রাখুন চোখ বুজে। সঙ্গীর ওপরে এতটুকু আস্থা রাখুন যে তিনি যা করবেন আপনাদের ভালোই জন্যই করবেন।

৪) সন্দেহ নয়, রাখুন বিশ্বাস। অহেতুক সন্দেহ যে কোন সম্পর্ককে নষ্ট করে দেয়। মনে রাখবেন, কেউ প্রতারণা করতে চাইলে আপনি সন্দেহ দিয়ে তাঁকে ঠেকিয়ে রাখতে পারবেন না।

৫) নিজেদের সম্পর্কে কখনো তৃতীয় ব্যক্তিকে প্রবেশ করতে দেবেন না। কখনো অন্য কারো কথায় নিজের সঙ্গীর সাথে ঝগড়া বা ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হতে দেবেন না, সে যত আপন মানুষই হোক না কেন।

৬) আজকের ঝগড়া কখনো আগামীকাল পর্যন্ত যেতে দেবেন না, সমাধান করুন আজকেই। শুনতে যতই ছেলেমানুষী মনে হোক না কেন, এটা ভীষণ জরুরী।

৭) পরস্পরের পরিবারকে সম্মান করুন। পছন্দ-অপছন্দ যাই হোক না কেন, সম্মানের জায়গাটি যেন ঠিক থাকে।

৮) ভুলেও প্রতারণা করবেন কিংবা করার কথা চিন্তাও করবেন না। প্রতারণা করলে প্রতারনাই ফিরে পাবেন এবং প্রতারণা কখনো চাপা থাকে না।

৯) নিজের যত্ন করুন, নিজেকে ভালবাসুন, নিজের জন্যও আলাদা সময় রাখুন। নিজেকে রাখুন সুন্দর ও ফিট। সঙ্গীর চোখে আপনার আকর্ষণ অটুট থাকবে চিরকাল।

১০) সম্পর্কের বুনোট গাঁথুন বন্ধুত্ব দিয়ে। পরস্পরের সাথে মন খুলে কথা বলুন, একসাথে শখের কাজ করুন, পরস্পরের কমন পছন্দের কাজগুলো দিয়ে আনন্দে ভরিয়ে রাখুন জীবন।

১১) চিরচেনা দৈনন্দিন জীবন থেকে ব্রেক নিয়ে সুযোগ পেলেই হারিয়ে যান নিরিবিলি, দুজনে দুজনার সাথে কাটান সময়। এগুলো সম্পর্ককে সতেজ রাখে আজীবন।

১২) জীবনে যত যাই হোক না কেন কোন পরিস্থিতিতেই পরস্পরকে গালাগাল করবেন না, খারাপ কথা বলবেন না বা গায়ে হাত তুলবেন না। এগুলো যা সর্বনাশ করে, এর চাইতে বেশী আর কোন কিছুতেই নয়।

Share This Post

Post Comment