গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে !

গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে !

গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে !

 

গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা তেমন মারাত্মক মনে না হলেও আপনার অবহেলার কারণে মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে কিছুদিনের মধ্যেই। গ্যাস্ট্রিকের সমস্যার কারণে অনেকেই অনেক খাবার এড়িয়ে চলেন।

কিন্তু তারপরেও গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে বাঁচতে পারেন না। গ্যাস্ট্রিকের মূল কারণগুলো হলো এসিডিটি, হজমের সমস্যা, বুক জ্বালা পোড়া করা ইত্যাদি।

এছাড়াও গ্যাস্ট্রিকের আরো কিছু কারণ হতে পারে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ, ফুড পয়জনিং, কিডনিতে পাথর, আলসার ইত্যাদি। তবে এই সমস্যার সমাধানও কিন্তু আমাদের হাতেই রয়েছে। বিশেষ কিছু পানীয় রয়েছে যার মাধ্যমে খুব সহজেই গ্যাস্ট্রিকের যন্ত্রণা দূর করে দেয়া সম্ভব। তাহলে

চলুন জেনে নিন এমন দুটি পানীয় সম্পর্কে।

১) পেয়ারা ও কলার পানীয় : পেয়ারা এবং কলা দুটি ফলেই প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। আর এ কারণেই এই পানীয়টি ইনটেস্টিনাল সমস্যা দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী।

যা যা প্রয়োজন
i) ২ টি পেয়ারা
ii) ২ টি কলা

যেভাবে তৈরি করতে হবেঃ

i) পেয়ারা এবং কলা দুটিই শুকনো ফল তাই এই ফলগুলো ছোট করে কেটে সামান্য পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে নেয়া উচিত।

ii) ব্লেন্ড করে বা জুসারে জুস তৈরি করে নিয়ে এই নিয়মিত পানীয় পান করুন গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা সমাধানের জন্য।

২) গাজর ও আলুর পানীয়: গাজর ডেটক্স ফুড নামে পরিচিত যা আমাদের পাকস্থলীসহ দেহের অভ্যন্তরীণ অঙ্গপ্রত্যঙ্গকে টক্সিনমুক্ত রাখতে সহায়তা করে। এবং আলুর রস আমাদের পেট ঠাণ্ডা রাখতে বিশেষভাবে কার্যকরী। তাই প্রতিদিন নিয়ম করে গাজর ও আলুর পানীয়টি পান করতে পারেন গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে।

যা যা প্রয়োজন

i) ২ টি মাঝারী আকারের গাজর

ii) ১ টি মাঝারী আকারের আল্য

iii) ১ ইঞ্চি পরিমাণে আদা

যেভাবে তৈরি করতে হবেঃ

i) গাজর ও আলু ভালো করে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে ছোট ছোট খণ্ড করে নিন। আদা কুচি করে রাখুন।

ii) এবার ব্লেন্ডারের দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে ছেঁকে জুস তৈরি করে নিন অথবা জুসারে দিয়ে একবারে জুস বের করে নিন।

iii) এই পানীয়টি পান করুন নিয়মিত।

সতর্কতা: যে কোনো ধরণের ঘরোয়া সমাধান পদ্ধতি ব্যবহার করার আগে যদি আপনার অন্যান্য কোনো সমস্যা থেকে থাকে তাহলে নিজের চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে

Share This Post

Post Comment