শীতে রুক্ষ চুলের যত্নে যা করবেন..!

শীতে রুক্ষ চুলের যত্নে যা করবেন..!

আসছে শীতকাল। এ মৌসুমে আবহাওয়া শুষ্ক হয়ে যাওয়ার সাথে সাথে চুলও হয়ে পড়ে রুক্ষ। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ কমে যাওয়ায় চুল হারিয়ে ফেলে তার স্বাভাবিক আর্দ্রতা। আর এতে চুল হয়ে যায় অনেক রুক্ষ। বাতাসে বাড়তে থাকে ধুলোবালির পরিমাণও। এতে চুল খুব সহজেই নোংরা হয়ে যায়। আর যাদের চুল সারাবছরই রুক্ষ, তারা পড়েন আরও বিড়ম্বনায়। তাই শীতে চুল মসৃণ ও ঝলমলে রাখতে চাই বিশেষ পরিচর্যা। আর এজন্য আপনাকে খুব সহজ কয়েকটি বিষয় একটু সতর্কতার সাথে পালন করতে হবে। খাওয়া-দাওয়ার বিষয়েও থাকতে হবে সাবধান।

তেল

রুক্ষ চুলের জন্য তেল অবশ্যই উপকারী। তবে চুলে তেল লাগিয়ে বাইরে না যাওয়াই ভালো। এতে চুলে আরও বেশি ময়লা জমবে। শ্যাম্পু করার ঘণ্টা-দুয়েক আগে নারকেল তেল বা অলিভ অয়েল গরম করে মাথার তালু ও চুলে লাগিয়ে নিন। এরপর শ্যাম্পু করুন। চাইলে গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে ভালো করে পানি ঝরিয়ে নিয়ে সেটা কিছুক্ষণ মাথায় জড়িয়েও রাখতে পারেন। এটাও চুলের জন্য দারুণ উপকারী।

চুলের প্যাক

শীতে রুক্ষ চুলের যত্নে রয়েছে বেশ কিছু প্যাক। আপনি চাইলে এটা ঘরে বসেও তৈরি করতে পারেন। সপ্তাহে অন্তত একদিন চুলে প্যাক লাগালেও ভালো ফল পাওয়া যায়। রুক্ষ চুলের জন্য সবচেয়ে বেশি উপকারী হলো কলা ও মধুর তৈরি প্যাক। এই প্যাক চুলকে নরম ও মসৃণ করবে। তবে এই প্যাক কখনোই মাথার তালুতে লাগাবেন না। তাহলে চুল ঝরে পড়ার হার বেড়ে যেতে পারে।

শ্যাম্পু

চুল নিয়মিত পরিষ্কারে শ্যাম্পুর কোনো বিকল্প নেই। তবে আপনার চুল রুক্ষ হলে শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে হবে বেছে বেছে। আপনাকে খুঁজে নিতে হবে কোন শ্যাম্পু রুক্ষ চুলের জন্য উপযোগী, যা পরিষ্কারের পাশাপাশি চুলে আর্দ্রতাও বজায় রাখবে।

কন্ডিশনার

শুধু শীতকালে নয়, সব ঋতুতেই চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করা জরুরি। তবে এটা কেনার আগেই সাবধান হতে হবে। কেনা এতটুকুনও ভুল হলে উল্টো চুল আরও রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। তবে চাইলে খুব সহজে ঘরে বসেও বানাতে পারেন কন্ডিশনার। চায়ের লিকার ঠাণ্ডা করে সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। ব্যস তৈরি হয়ে গেল কন্ডিশনার। এবার শ্যাম্পু করার পর চুলে লাগিয়ে নিন।

খাদ্যতালিকা

সুন্দর চুলের জন্য যত্ন নেয়ার পাশাপাশি প্রয়োজন সঠিক খাদ্যতালিকা। এতে চুলের স্বাস্থ্য রক্ষার পাশাপাশি শরীরও সুস্থ থাকবে। তাই পুষ্টিকর খাবারদাবারের প্রতি নজর দিন। প্রচুর মৌসুমী ফল ও শাকসবজি খাদ্যতালিকায় রাখুন। চর্বি জাতীয় খাবার ও ফাস্টফুড একেবারেই বাদ দিন। পাশাপাশি পানি পান করুন প্রচুর পরিমাণে। এতে আপনি ভালো থাকবেন, আর আপনার চুলও থাকবে প্রাণবন্ত ও ঝলমলে।

Share This Post

Post Comment