“শীতে সাজুগুজুর বিশেষ টিপস্‌”

“শীতে সাজুগুজুর বিশেষ টিপস্‌”

শীতে উৎসব অনুষ্ঠান লেগেই থাকে। এই সময়টায় সাজেও দিতে হয় বাড়তি খেয়াল। শুষ্ক আবহাওয়ার কারণেই রপ্ত করতে হয় আলাদা কৌশল। শীতের সাজের নানা উপায় ।

মেকআপের আগের প্রস্তুতি

শুষ্ক আবহাওয়ায় ত্বক রুক্ষ হয়ে ওঠে। বাইরের ধুলাবালির কারণে ত্বকে ময়লা জমে। তাই সাজগোজের আগে ফেসওয়াশ দিয়ে হাতমুখ পরিষ্কার করে নিতে হবে। সময় থাকলে স্ক্রাবার দিয়েও মুখ পরিষ্কার করে নিতে পারেন। এতে ত্বকের হোয়াইট হেডস, ব্ল্যাক হেডস ও মরা কোষ উঠে যাবে। এরপর ত্বকের ধরন অনুযায়ী ভেজা ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লোশন ব্যবহার করতে হবে।

ত্বকের সাজ

শীতে ফাউন্ডেশন হিসেবে অয়েল বেইজড ফাউন্ডেশন বা ক্রিম ফাউন্ডেশন ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বক সতেজ থাকবে। ক্রিম ফাউন্ডেশনের ওপর আলতো করে ফেস পাউডার লাগিয়ে নিতে হবে। তবে ত্বক বেশি শুষ্ক হলে ব্যবহার না করাই ভালো। পরিবর্তে গ্লিটার পাউডার লাগাতে পারেন।

ব্লাশন ছাড়াও আলাদা করে গ্লিটার দেওয়া যায়। ফেস পাউডারেই গ্লিটার থাকলে সাধারণ ব্লাশন লাগান।

শীতে ঘামের ভয় নেই। দিনের বেলায় হালকা মেকআপ করা যায়। রাতে গাঢ়।

চোখ

শীতে স্মোকি চোখের সাজ বেশি মানায়। পোশাকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে আইশ্যাডো দিলেও কালো আর সোনালির ছোঁয়া রাখতে পারেন চোখে। শীতে মনমতো কাজল পরতে পারেন। ঘেমে লেপ্টে যাওয়ার ভয় নেই। নীল, সবুজ, ময়ূর, কালো-যেকোনো রং টানতে পারেন চোখের কোণে। আইলাইনার, কাজল যা-ই দিন না কেন, চোখের পাপড়ি সাজাতে মাশকারা ব্যবহার করুন।

ঠোঁট

শীতে ঠোঁট বেশি রুক্ষ হয়। তাই সব সময় লিপবাম লাগান। লিপবামটা সানস্ক্রিনযুক্ত হলে ভালো। ঠোঁট সাজাতে ম্যাট লিপস্টিক বাদ দিয়ে ক্রিম লিপস্টিক বেছে নিন। লিপস্টিকে আপত্তি থাকলে ঠোঁটের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে অথবা হালকা গোলাপি লিপগ্লস ব্যবহার করতে পারেন।

চুল

পোশাকের সঙ্গে মিল রেখে চুল বাঁধুন। সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে করতে পারেন পনিটেইল কিংবা ফ্রেঞ্চ বান। খোঁপায় গুঁজতে পারেন শীতের কোনো রঙিন ফুল। চুল খোলা রাখতে ব্লো ডাই করে ছেড়ে দিন।

টিপস

* বাফারিং ব্রাশ দিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে মুখের ত্বকের সঙ্গে ফাউন্ডেশন মিশিয়ে দিলে ত্বকের সঙ্গে ভালোভাবে মিশে যাবে।

* শীতে গাঢ় রঙের এবং ময়েশ্চারাইজার সমৃদ্ধ লিপস্টিক ভালো।

* পানিরোধক মাশকারা ব্যবহার করুন।

* মেকআপ করার সময় ত্বকের রং অনুযায়ী প্যানকেক বেছে নিন।

Share This Post

Post Comment