হাঁড়ি-পাতিলের পোড়া দাগ দূর করার ৫টি ঘরোয়া পদ্ধতি

হাঁড়ি-পাতিলের পোড়া দাগ দূর করার ৫টি ঘরোয়া পদ্ধতি

নানা কারণে পাতিলে দাগ পড়ে থাকে। দুধ উথলে দাগ পরতে পারে বা তরকারি পুড়ে গিয়ে দাগ লেগে যেতে পারে পাতিলে। আর ঈদের সময় তো কোন কথা নেই, মাংস পুড়ে গেলে পাতিলে দীর্ঘস্থায়ী দাগ পড়ে যায়। এই জেদী দাগ সহজে উঠতে চায় না। কিছু ঘরোয়া উপায় আছে যা ব্যবহার করে এই দাগ দূর করা সম্ভব। আসুন জেনে নেওয়া যাক পাতিলের দাগ উঠানোর সহজ কিছু উপায়।

১। বেকিং সোডা
পাতিলের পোড়া দাগ লাগা স্থানে এক বা দুই কাপ বেকিং সোডা ছিটিয়ে নিন। এবার কিনারা পর্যন্ত পর্যাপ্ত পানি দিয়ে ১৫ মিনিট ফুটতে দিন। প্রয়োজন পড়লে এটি ১/২ ঘন্টা পর আবার করুন। খুব বেশি কালো দাগ পরলে এক চিমিট লবণ দিয়ে দিতে পারেন।

২। ভিনেগার
পাতিলের পোড়া দাগ তোলার জন্য ভিনেগার অনেক বেশি কার্যকরী। পোড়া জায়গায় ভিনেগার দিয়ে চুলায় অল্প আঁচে পাতিল রাখুন। চুলা থেকে নামিয়ে একটি ব্রাশ দিয়ে ঘষুন। কিছুক্ষণ ঘষার পর দেখবেন দাগ আস্তে আস্তে উঠে গেছে। ভিনেগার এর পরিবর্তে লেবুর রস ব্যবহার করতে পারবেন।

৩। কেচাপ
পাতিলের পোড়া জায়গায় পুরু করে কেচাপ লাগান। সারারাত এভাবে পাতিলটি রেখে দিন। পরের দিন এটি ঘষে ঘষে ধুয়ে ফেলুন। টমেটোতে যে এসিড আছে তা পোড়া দাগ দূর করে থাকে।

৪। কোকাকোলা
কোকাকোলা দিয়ে পাতিলটি ভর্তি করে নিন। কয়েক ঘন্টার জন্য পাতিলটি এভাবে রেখে দিন। এবার একটি পাতিল ঘষার মাজুনি দিয়ে ভাল করে ঘষুন। তারপর পাতিলটি ধুয়ে ফেলুন। ধোয়ার পর দেখবেন দাগ একদম দূর হয়ে গেছে।

৫। ডিশওয়াশার ডিটারজেন্ট
পাতিলের পোড়া জায়গায় ডিশওয়াশার পাউডার ছিটিয়ে দিন। তারপর গরম পানি দিয়ে পাতিলটি ভরে ফেলুন। পানি ঠান্ডা হয়ে এলে একটি ব্রাশ দিয়ে ঘষুন। দাগ হালকা হলে এই পদ্ধতিটি অনেক ভাল কাজ করবে।

সতর্কতা: এই পদ্ধতিগুলো স্টেইনলেসস্টিল, এনামেল পাতিলের জন্য প্রযোজ্য। নন স্টিক পাতিলের ক্ষেত্রে এটি কার্যকরী নাও হতে পারে।

Share This Post

Post Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.