এমএস অফিসের বিকল্প এ্যাপাচির “ওপেন-অফিস”

এমএস অফিসের বিকল্প এ্যাপাচির “ওপেন-অফিস”
এমএস অফিসের বিকল্প এ্যাপাচির “ওপেন-অফিস”
এমএস অফিসের বিকল্প এ্যাপাচির “ওপেন-অফিস”

আমি সব সময় চেষ্টা করি যতটুকু পরিমাণ ওপেন সোর্সের জালে থাকা সম্ভব, ততটুকুই থাকতে!
তারই অংশবিশেষ হিসেবে গতকালকে এ্যাপাচির “ওপেন-অফিস” সেটআপ দিলাম।

সেটআপ দেওয়ার আগে অবশ্যই ইউটিউব থেকে ভিডিও দেখে নিছি যে, “এমএস অফিস” ভাল, নাকি “ওপেন-অফিস” ভাল+পার্থক্য কেমন। তো, জা দেখলাম তাতে সবাই সকল দিক দিয়ে ওপেন-অফিসটাকেই পাঁচে পাঁচ দিল! তাই আর বেশি না ভেবে আরও কিছু অনলাইন আর্টিকেল+ব্লগ পড়ে, সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেললাম যে, আজকে (গতকাল) সেটআপ দিবই!
যেই ভাবনা সেই কাজ! সেটআপ দিয়ে ফেললাম।

গতকালকে আর লেখালেখির সময় হয়ে উঠেনি তাই, আজকে একটু টাইপ করলাম+ফিচার গুলোও দেখে নিলাম। এক কথায় অসাধারন। এমএস অফিসে যতটুকু র‍্যাম লাগে তার চাইতেও অনেক কম র‍্যাম লাগে ওপেন অফিসে! আপনার হার্ডডিস্কের অনেকটা জায়গাও বাঁচিয়ে দিবে ওপেন অফিস!

ওপেন অফিস সম্পূর্ণ ফ্রী! যেখানে এমএস অফিস অনেক এক্সপেন্সিভ সেখানে এমএস অফিসের প্রায় সকল সুবিধা+এক্সট্রা ফিচার পাচ্ছেন ওপেন অফিসে। যদিও আমরা মিস্টার পাইরেট জাতি! এমএস অফিসই চালামু, ক্র্যাক তো আছেই!

এমএস অফিস আর ওপেন অফিসের মাঝে কম্পেয়ার করতে চাইলে গুগল করতে পারেন। অনেক সাইট আছে পার্থক্য, সুবিধা, এক্সট্রা ফিচার বুঝার/জানার জন্য।

Share This Post

Post Comment