থ্রিডি প্রিন্টারে ওষুধ তৈরি!

থ্রিডি প্রিন্টারে ওষুধ তৈরি!

খাবার, পোশাক, অঙ্গপ্রত্যঙ্গ, চিকিৎসা উপকরণের পর এবার ত্রিমাত্রিক (থ্রিডি) প্রিন্টারের সাহায্যে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ তৈরি হচ্ছে। এই ওষুধ বিক্রয় ও বিপণনে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) অনুমতিও পেয়েছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। অর্থাৎ চাইলে এখন রোগীদের কাছে থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি ওষুধ বিক্রি করতে পারবে ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অ্যাপ্রেশিয়া ফার্মাসিউটিক্যালস।
এর মাধ্যমে সারা বিশ্বে থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি প্রথম ওষুধের আনুষ্ঠানিক অনুমোদন মিলল। মৃগী রোগীদের জন্য তৈরি বিশেষ এ ওষুধের নাম ‘স্পিরট্যাম’। থ্রিডি প্রিন্টারে বানানো সম্ভব বলে যখন রোগীর যেমন প্রয়োজন সে অনুযায়ী ওষুধ প্রস্তুত এবং বিতরণ করা যাবে। কাজের ধারায় প্রচলিত ওষুধের সঙ্গে এর কোনো পার্থক্য থাকবে না।
যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব সেন্ট্রাল ল্যাঙ্কারশায়ারের শিক্ষক ও গবেষক মোহামেদ আলবেদ আলনান জানান, এর আগে ৫০ বছর ধরে কারখানায় ওষুধ উৎপাদন করে সেগুলো হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার কাজটি আমরা করে আসছি। তবে এই প্রথমবারের মতো রোগীর প্রয়োজন অনুসারে আলাদা আলাদা ডোজের ওষুধ তৈরির পথে এগিয়ে যাচ্ছি আমরা। থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি ওষুধ ব্যয়বহুল হবে বলে জানা গেছে। তবে জরুরি মুহূর্তে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ তৈরির ক্ষেত্রে নতুন এ প্রযুক্তি গবেষকদেরও আরও নানা বিষয়ে গবেষণায় উৎসাহিত করে তুলছে।

লেখাটি পছন্দ হইলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
নিয়মিত সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ অ্যাক্টিভ থাকুন।

বিবিসি

 

Share This Post

Post Comment