গিগাবাইটের এক অসাধারন মাদারবোর্ড

গিগাবাইটের এক অসাধারন মাদারবোর্ড

অতিসাম্প্রতিক বাংলাদেশ এ গিগাবাইট নিয়ে এসেছে, এক অসাধারন মাদারবোর্ড, যা সারা বিশ্বে নতুন ইতিহাস রচনা করেছে। ইন্টেলের জেড ৬৮ চিপসেট যুক্ত এই মাদারবোর্ড টি শুধু মাত্র সর্বাধুনিক মাদারবোর্ড ই নয়, বরং আরো অনেক কিছু। গিগাবাইট ই সর্ব প্রথম একটি মাদারবোর্ড নিয়ে এসেছে, যাতে বসানো আছে একটি SSD, বা Solid State Drive। ইন্টেল এর তৈরি ৩১১ সিরিজের ২০ গিগাবাইটের এই Solid State Drive টি গিগাবাইটের GA-Z68XP-UD3-iSSD মাদারবোর্ড এর সাথে বান্ডেল আকারে পাওয়া যাচ্ছে। ব্যবহৃত SSD টি, বাজারে পাওয়া একটি ৭২০০ rpm এর যেকোন সাটা হার্ডড্রাইভ এর থেকেও চার গুন বেশি গতি সম্পন্ন।


মজার বিষয় হচ্ছে, এই মাদারবোর্ড টিতে লুসিড-লজিক্স-ভার্চুয়াল- সুইচ এবল গ্রাফিক্স টেকনোলজি ব্যবহৃত হয়েছে, যার সাহায্যে আপনি খুব সহজেই অ্যাপ্লিকেশান অনুসারে আপনার GPU কে নির্ধারন করে দিতে পারছেন। ধরাযাক, আপনি একটি লো-এন্ড এর অ্যাপ্লিকেশান চালাচ্ছেন, যেখানে আপনার কম্পিউটার এ বসানো গ্রাফিক্স কার্ড টির কোন দরকার হচ্ছে না। অকারনে সেটি চলছে এবং শক্তি অপচয় হচ্ছে, লুসিড-লগিক্স-ভার্চুয়াল- সুইচ এবল গ্রাফিক্স টেকনোলজি এর সাহায্যে আপনি খুব সহজেই সেই অ্যাপ্লিকেশান টির জন্য আপনার গ্রাফিক্স কার্ড এর পরিবর্তে আপনার প্রসেসসর এর গ্রাফিক্স ইউনিট দিয়ে কার করিয়ে নিতে পারবেন। এতে করে শক্তির অপচয় অনেক টাই কমে আসবে।
এছাড়াও, ডুয়েল বায়োস, সাটা ৩.০ এবং ইউএসবি ৩.০ তো আছেই।

আসুন দেখে নেয়া যাক, এই মাদারবোর্ড টির স্পেসিফিকেশনসঃ

সিপিইউঃ
এল জি এ ১১৫৫ (LGA 1155) সিরিজের সকল প্রসেসর (ইন্টেলের সেকেন্ড জেনারেশন এর কোর আই ৭,৫,এবং ৩, সেলেরন এবং পেন্টিয়াম)

র‍্যামঃ
চার টি ডিডিআর ৩ র‍্যাম স্লট, যা একাধারে, ২১৩৩, ১৮৬৬, ১৬০০, ১৩৩৩ এবং ১০৬৬ মেগাহার্জ এর মেমোরি মডিউল সাপোর্ট করে।
সর্বোচ্চ ৩২ গিগাবাইট পর্যন্ত র্যাসম, এই মাদারবোর্ড এ লাগানো সম্ভব।

গ্রাফিক্সঃ
একটি HDMI পোর্ট, যাতে আপনি পেতেপারেন সর্বোচ্চ ১৯২০x১২০০ রেজুলেশন।

অডিওঃ
রিয়েলটেক ALC889 কোডেক, যাতে থাকছে, ২,৪,৫.১,৭.১ চ্যানেল এর হাই ডেফিনেশন, ডলবি ডিজিটাল হোম থিয়েটার সাউন্ড সিস্টেম।

নেটওয়ার্ক ইন্টারফেসঃ
রিয়েলটেক RTL 8111E চিপ।

এক্সপানশন স্লটঃ
দুটি PCI Express স্লট (PCIEX16 এবং PCIEX8)
তিনটি PCI Express স্লট (PCIEX1)
দুটি PCI স্লট
এএমডি’র ক্রসফায়ার এবং এনভিদিয়ার এসএলআই সাপোর্ট করে।

স্টোরেজ ইন্টারফেসঃ

চারটি সাটা ৩. ০ কানেক্টর যা প্রতি সেকেন্ডে ৬ গিগাবাইট তথ্য আদান প্রদানে সক্ষম।
চারটি সাধারন সাটা কানেক্টর যা প্রতি সেকেন্ডে ৩ গিগাবাইট তথ্য আদান প্রদানে সক্ষম।
রেইড ০,১,৫, এবং ১০ সাপোর্ট করে।

মোট ১৮ টি ইউএসবি পোর্ট আছে, যার মধ্যে ৮ টি ইউএসবি ২.০ এবং ২ টি ইউএসবি ৩.০ মাদারবোর্ড এর পেছনে আছে। অন্যদিকে, ৬ টি ইউএসবি ২.০ এবং ২ টি ইউএসবি ৩.০ এর কানেক্টোর মাদারবোর্ড এ বসানো আছে, যা থেকে কম্পিউটার কেস এর সংযোগ দেয়া সম্ভব।

ইন্টার্নাল ইনপুট/ আউটপুট কানেক্টোরসঃ

একটি ২৪ পিন এটিএক্স মেইন পাওয়ার কানেক্টোর।
একটি ৮ পিন এটিএক্স ১২ ভোল্ট পাওয়ার কানেক্টোর।
চারটি সাটা ৩. ০ কানেক্টর
চারটি সাটা ২. ০ কানেক্টর
একটি mSATA কানেক্টোর (SSD ‘র জন্য)
একটি সিপিইউ ফ্যান হেডার
দুইটি সিস্টেম ফ্যান হেডার
একটি পাওয়ার ফ্যান হেডার
একটি ফ্রন্ট প্যানেল হেডার
তিনটি ইউএসবি ২.0 হেডার
একটি ইউএসবি ৩.0 হেডার
একটি IEEE1394a হেডার
একটি সিরিয়াল পোর্ট হেডার
একটি CMOS ক্লিয়ারিং জাম্পার।

মাদারবোর্ড এর ব্যাক প্যানেলঃ

GA-Z68XP-UD3-iSSD মাদারবোর্ড এর ব্যাক প্যানেল এ আছে;

একটি PS/2 পোর্ট
একটি HDMI পোর্ট
একটি অপটিক্যাল S/PDIF আউট কানেক্টোর
একটি IEEE 1394 পোর্ট
আটটি ইউএসবি ২.0/১.১ পোর্ট
দুটি ইউএসবি ৩.0 পোর্ট
একটি আরজে ৪৫ (RJ-45)পোর্ট
ছয়টি অডিও জ্যাক

হার্ডওয়্যার মনিটরিং

যেকোন ধরনের সিস্টেম এর জন্য হার্ডওয়্যার মনিটরিং একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয়। একথা মাথাতে রেখেই, বর্তমানের মাদারবোর্ড গুলোতে বেশ কিছু কমন ফিচার থাকে। GA-Z68XP-UD3-iSSD মাদারবোর্ড টিও এর ব্যাতিক্রম কিছু নয়। হার্ডওয়্যার মনিটরিং এর মধ্যে আছে;

সিস্টেম ভল্টেজ ডিটেকশন।
সিপিইউ এবং সিস্টেম এর টেম্পারেচার ডিটেকশন
সিপিইউ, সিস্টেম এবং পাওয়ার ফ্যান এর স্পীড ডিটেকশন
সিপিইউ ওভার হীট ওয়ার্নিং
সিপিইউ এবং সিস্টেম ফ্যান ফেল ওয়ার্নিং
সিপিইউ এবং সিস্টেম ফ্যান স্পীড কন্ট্রোল

অপারেটিং সিস্টেমঃ
GA-Z68XP-UD3-iSSD মাদারবোর্ড টি আপনি ব্যবহার করতে চাইলে, আপনার সিস্টেম টি অবশ্যই উইন্ডোজ সেভেন, ভিস্তা অথবা কমপক্ষে উইন্ডোজ এক্সপি তে চলতে হবে।

GA-Z68XP-UD3-iSSD মাদারবোর্ড টি এটিএক্স ফর্ম ফ্যাক্টর এ করা। এবং এর গঠন হচ্ছে, ৩০.৫ x ২৪.৪ সেন্টিমিটার

Share This Post

Post Comment