দোকানের মত পুরভরা কালোজাম তৈরি করে ফেলুন ঘরেই””

দোকানের মত পুরভরা কালোজাম তৈরি করে ফেলুন ঘরেই””

বাঙালি মিষ্টি খেতে অনেক পছন্দ করে। আর তা যদি হয় কালোজাম তবে তো কথাই নেই! কিন্তু সবসময় কি আর দোকান থেকে কিনে কালোজাম খাওয়া হয়। আর পুরভরা কালোজাম সব দোকানে পাওয়াও যায় না। ঘরেই যদি পুরভরা কালোজাম তৈরি করা যায় তবে কেমন হয় বলুন তো? দারুন, তাই তো? আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক পুরভরা কালোজাম তৈরির রেসিপিটি।

উপকরণ:

১০০ গ্রাম মাওয়া (গরুর দুধের মাওয়া)
২৫ গ্রাম কটেজ চিজ
২ টেবিল চামচ ময়দা
২ টেবিল চামচ কর্ণ ফ্লাওয়ার
৩ কাপ চিনি
১/২ চা চামচ এলাচি গুঁড়া
১/৪ কাপ বাদাম কুচি
১ চিমটি বেকিং পাউডার
১ চিমটি রং
পানি
৮-১০ টা চিরঞ্জিত বা চিনির তৈরি নকুলদানা
ঘি বা তেল

প্রণালী:

১) প্রথমে একটি পাত্রে পানি আর চিনি জ্বাল দিয়ে চিনির সিরা তৈরি করে নিন।

২) চিজ কুচি করে ভাল করে মিশিয়ে ডো করে নিন।

৩) ঠিক একইভাবে মাওয়া ভাল করে মিশিয়ে ডো তৈরি করে নিন।

৪) ভালভাবে ডো হয়ে গেলে চিজ, মাওয়া, কর্ণ ফ্লাওয়ার, বেকিং পাউডার, ময়দা দিয়ে খুব ভাল করে মেশান। খুব ভাল করে ডো তৈরি করে নিন। পানি ব্যবহার করবেন না।

৫) এবার ডো থেকে কিছু অংশ আলাদা করে নিন। খুব বেশি পরিমাণে নিবেন না। এই ডো এর সাথে রং, বাদাম কুচি, চিনির নকুল দানা দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে পুর তৈরি করে নিন। এই পুরটি কালোজামের ভিতর দেওয়া হবে।

৬) এখন ডোয়ের বাকি অংশটুকু ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন। একটি করে ডোয়ের ছোট টুকরে নিয়ে হাত দিয়ে সমান করে ভিতরে পুর ঢুকিয়ে গোল বা লম্বা আকৃতি করে নিন। এমনভাবে গোল করবেন যাতে ডোটির চারপাশ ফেটে না যায়।

৭) এখন চুলায় মাঝারি বা অল্প আঁচে তেল বা ঘি গরম করতে দিন। গরম তেলের মধ্যে কালোজামগুলো দিয়ে দিন। কালোজামগুলো অল্প আঁচে ভাজবেন। বেশি তাপ দিলে এর ভিতরটা কাঁচা থেকে যাবে। কালোজাম ভাজার সময় অব্যশই চুলার তাপ কম রাখবেন।

৮) কালোজামগুলো হালকা বাদামী রং হয়ে আসলে এতে কিছু পানি ছিটিয়ে দিন। এতে কালোজামগুলো দ্রুত কালো রঙ হয়ে আসবে। এবার কালোজামগুলো চিনির রসে দিয়ে দিন। চিনির রসে দেওয়ার আগে রসের মধ্যে এক চিমটি এলাচি গুঁড়া ছিটিয়ে দিন। এটি কালোজামে আলাদা একটি স্বাদ নিয়ে আসবে।

৯) কালোজামগুলো ১০ থেকে ১৫ মিনিট চিনির রসে ভিজিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর চিনির রস থেকে কালোজাম উঠিয়ে পরিবেশন করুন।

Share This Post

Post Comment