”’মাংস নয়, ডিমেই হবে সুস্বাদু বিরিয়ানি”’

”’মাংস নয়, ডিমেই হবে সুস্বাদু বিরিয়ানি”’

বিরিয়ানি মানেই কোন রকমের মাংস থাকবে তাতে। কিন্তু মাংস ছাড়াও কী বিরিয়ানি হয়? হ্যাঁ, মাংস ছাড়াই হতে পারে ডিমের বিরিয়ানি। কিন্তু মাংস নেই বলে এর স্বাদ কম হবে না একটুও। অন্য যে কোন বিরিয়ানির মতোই মশলাদার এবং মুখরোচক ডিমের বিরিয়ানি তৈরির প্রণালীটি জেনে নিন এখনই। আর এই বিরিয়ানি তৈরি করতেও সময়টা লাগবে অনেক কম।

উপকরণ

  • –   দেড় কাপ বাসমতি চাল (ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে আর মোটামুটি ৭০% সেদ্ধ করে রাখতে হবে)
  • –   ১টা মাঝারি পিঁয়াজ কুচি করে কাটা
  • –   ৪ টেবিল চামচ তেল
  • –   দেড় চা চামচ জিরা
  • –   ২ টেবিল চামচ আদা-রসুন বাটা
  • –   দেড় টেবিল চামচ কাজুবাদাম
  • –   সিকি কাপ দই
  • –   ৩ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি
  • –   ১টা মাঝারি পিঁয়াজ বেরেস্তা করা
  • –   লবণ স্বাদমতো
  • –   জিরা গুঁড়ো দেড় টেবিল চামচ
  • –   ৪টা কাঁচামরিচ মাঝখান থেকে চিরে রাখা
  • –   দেড় টেবিল চামচ ধনে গুঁড়ো
  • –   ৩ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো
  • –   দেড় চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
  • –   আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
  • –   আধা টেবিল চামচ পুদিনা পাতা (শুকনো)
  • –   ৬টা ডিম, (শক্ত করে সেদ্ধ করা এবং অর্ধেক করে কাটা)
  • –    জাফরান অল্প, এক টবিল চামচ উষ্ণ দুধে ভেজানো
  • –   ২ চা চামচ লেবুর রস

প্রণালী

এগ মাসালা

কড়াইতে তেল গরম করে নিন। তেল গরম হবার সাথে এতে দিয়ে দিন আধা চা চামচ মরিচ গুঁড়ো, সিকি চা চামচ হলুদ গুঁড়ো এবং লবণ। এতে পাশাপাশি বসিয়ে দিন ডিমগুলোকে। যতক্ষণ না দুদিকে সমানভাবে সোনালি না হয় ততক্ষণ ফ্রাই করে নিন ডিম। মাঝারি আঁচে ফ্রাই করবেন। নামিয়ে রাখুন।

মাসালা গ্রেভি

১) বড় একটা কড়াইতে মাঝারি আঁচে তেল গরম করে নিন। এতে জিরা দিয়ে দিন। এগুলো ফুটে উঠলে কাঁচামরিচ দিয়ে ১০ সেকেন্ড ভেজে নিন। এরপর দিন পিঁয়াজ, আদা-রসুন বাটা এবং কাজুবাদাম। ঢাকনা চাপা দিয়ে রান্না করুন যতক্ষণ না পিঁয়াজ নরম হয়ে আসে।

২) এরপর যোগ করুন অন্যান্য সব মশলা। প্রথমে দিন ধনে গুঁড়ো এবং মরিচ গুঁড়ো। এরপর দেবেন হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা, জিরা গুঁড়ো এবং। এরপর টক দই দিয়ে মিশিয়ে রান্না করতে থাকুন যতক্ষণ না তেল ওপরে উঠে আসে।
৩) তেল উপরে উঠে আসলে দ্রুত এতে ডিমগুলো দিয়ে দিন। দইয়ের গ্রেভিতে মাখিয়ে নিন ডিমগুলোকে।

৪) এরপর সেদ্ধ বাসমতী চালের ভাত ওপরে দিয়ে দিন। ডিমের ওপরে সমান করে সাজিয়ে দিন ভাত। এর ওপরে আরেক স্তরে দিন বেরেস্তা, ধনেপাতা কুচি, পুদিনা পাতা। একটু পানি ছিটিয়ে দিন যাতে বেশি শুকনো হয়ে না যায়। ওপরে শক্ত করে ঢাকনা দিয়ে দিন এবং একদম কম আঁচে দমে রাখুন ১৫ মিনিট।

৫) ১৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে লেবুর রস চিপে দিন। আলতো হাতে চামচ দিয়ে মিশিয়ে নিন যাতে ডিমের মশলা এবং রাইস মিশে যায়।

তৈরি হয়ে গেলো এগ বিরিয়ানি। অন্য কোন তরকারি ছাড়াও শুধু সালাদ বা রায়তার সাথে একে পরিবেশন করতে পারেন।

Share This Post

Post Comment