রকমারি স্বাদে মাছ-২ (রেসিপি)।

রকমারি স্বাদে মাছ-২ (রেসিপি)।

মাছের ঝোল আর ভাজা মাছ-এসব তো রোজকার মেন্যু। মাছ দিয়েও তৈরি করা যায় নানা ধরনের কোফতা-কাবাব। তেমনই কয়েকটি পদের রেসিপি থাকছে এখানে।

কাচকি পাতুরি

উপকরণঃ
– কাচকি মাছ ১ কাপ,
– পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ,
– কাঁচা মরিচ ফাড়া ৮-১০টা,
– হলুদ গুঁড়া ২ চামচ,
– মরিচ গুঁড়া ২ চামচ,
– সরষের তেল ৫ টেবিল চামচ,
– লবণ পরিমাণমতো,
– রসুনবাটা ২ চামচ ও
– লাউপাতা প্রয়োজনমতো।

কাচকি পাতুরি প্রণালিঃ
– লবণ দিয়ে লাউপাতা কচলে নরম করে ধুয়ে চিপড়ে নিন।
– একটি পাত্রে প্রথমে লবণ দিয়ে পেঁয়াজ-মরিচ গুলে নরম করে তাতে একে একে ২ টেবিল চামচ সরষেবাটা, অর্ধেক পরিমাণ হলুদ-মরিচ গুঁড়া, রসুনবাটা, ধনেপাতা, ৩ টেবিল চামচ সরষের তেল ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে মেখে শেষে আলতো করে কাচকি মাছ মাখিয়ে নিতে হবে।
– এবার চিপড়ানো লাউপাতা বিছিয়ে তাতে মাঝখানে কাচকি মাছের পুর দিয়ে তার চারপাশ থেকে বটে ছোট ছোট পার্সেল তৈরি করুন।
– ফ্রাইপ্যানে বাকি তেল গরম করে তাতে বাকি সব মসলা একটু পানি দিয়ে গুলে কষাতে হবে।
– তারপর অর্ধেকটা নারকেলের দুধ দিয়ে কষাবেন।
– কষানো মসলায় পার্সেলগুলো বসিয়ে দিন এবং ঢেকে অল্প আঁচে ১০ মিনিট রান্না করুন।
– ১০ মিনিট পর উল্টে দিন এবং বাকি নারকেলের দুধ ঢেলে ঢেকে আবার ১০ মিনিট রান্না করুন।
– ঝোল ঘন হয়ে তেল ভেসে উঠলে সার্ভিং ডিশে পার্সেলগুলো সাজিয়ে তার ওপর ঘন ঝোল ঢেলে দিন।

মাছের কাবাবমাছের কাবাব

উপকরণঃ
– যেকোনো মাছ লবণ,
– আদা, রসুনবাটা দিয়ে সেদ্ধ করে বাছা ১ কাপ,
– আদা কুচি ২ টেবিল চামচ,
– পেঁয়াজ কুচি পৌনে এক কাপ,
– কাঁচা মরিচ কুচি ১ টেবিল চামচ,
– ধনেপাতা কুচি ১ মুঠো,
– পাউরুটি দুধে ভেজানো ২ পিস,
– সরষের তেল ৩ টেবিল চামচ,
– লবণ আন্দাজমতো,
– সেমাই ভাঙা প্রয়োজনমতো,
– লেবুর খোসা কোরানো ১ টেবিল চামচ ও
– গরমমসলার গুঁড়া আধা চা-চামচ।

প্রণালিঃ
– কড়াইয়ে সরষের তেল গরম করে প্রথমে আদা কুচি দিয়ে ভাজতে হবে।
– এরপর তাতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা ভেজে মাছ দিয়ে ভুনে নিন।
– এবার দুধে ভিজিয়ে রাখা পাউরুটির কোনাগুলো দিন।
– ভুনুন, এবার গরমমসলা ও কাঁচা মরিচ দিন, ভুনে নিয়ে চুলা বন্ধ করে তাতে লেবুর খোসা কোরানো দিন।
– লেবুর রস দিন, এবার ঠান্ডা করে নিয়ে টিকিয়া কাবাবের মতো কাবাব বানান।
– এবার ডিমে ডুবিয়ে উপরে সেমাইয়ের প্রলেপ দিন ও ডুবো তেলে ভাজুন।

Share This Post

Post Comment