সপ্তমীর খাবারে ডাল পোলাও

সপ্তমীর খাবারে ডাল পোলাও

বাঙালির সব উৎসবে বাসন্তি পোলাওয়ের স্থান বরাবরই থাকে ওপরের দিকে। তার উপর আবার শারদীয় দুর্গোৎসবের সপ্তমী। জুড়ি মেলাতে চাই বিশেষ স্বাদের সোনামুগ ডাল। আসুন জেনে নেয়া যাক চটজলদি রান্নার সহজ উপায়।

যা যা লাগবে

বাসমতি চাল-১ কেজি, আদাবাটা-১ চা চামচ, কাজু বাদাম-৫০ গ্রাম, কিসমিস-৫০ গ্রাম, মটরশুটি-পরিমান মতো, ঘি-২ টেবিল চামচ, তেজপাতা-২ টা, এলাচ ৩টা, লবঙ্গ ৪টা, দারুচিনি ১টা ছোট, ফুড কালার ১ চিমটি, লবণ স্বাদমতো, তেল ২০০ গ্রাম।

যেভাবে করবেন

চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে। এবারে চালের মধ্যে আদা বাটা, ফুড কালার মাখিয়ে ৩০ মিনিট রেখে দিন। কড়াইয়ে ঘি আর তেল দিয়ে গরম হয়ে এলে মসলা ও তেজপাতা দিয়ে ১০ মিনিট চাল ভেজে নিন। মটরশুঁটি, কাজু, কিসমিস দিয়ে ভালো করে আবারো কিছুক্ষণ নাড়তে হবে। সুন্দর গন্ধ বেরোলে যে পরিমান চাল দিয়েছেন তার দ্বিগুন পানি দিয়ে লবণ, চিনি মিশিয়ে পাত্রের মুখ বন্ধ করে দিন। অল্প আঁচে রাখতে হবে ২০ মিনিট। ব্যাস হয়ে গেল বাসন্তী পোলাও।

সোনামুগ ডাল

যা যা লাগবে

সোনামুগ ডাল ৫০০ গ্রাম, মাঝারি ১টা ফুলকপি, আদা ২০ গ্রাম, কাঁচামরিচ পরিমান মতো, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, হলুদ, চিনি, ঘি,এলাচ গুড়া, দারুচিনি ২ টুকরা, রসুন বাটা ৪ চা চামচ।

যেভাবে করবেন

ফুলকপি ছোট টুকরোয় কেটে ভেজে নিন। সোনমুগ ডাল হালকা করে ভেজে নিতে হবে। ভাজার সময় যাতে বেশি পুড়ে না যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ডাল ভাজার সুন্দর গন্ধ বেরোলে লবণ ও হলুদ দিয়ে অল্প পানিতে ডাল সেদ্ধ করে নিতে হবে।

কড়াইয়ে তেল দিয়ে আদাবাটা, এলাচ গুড়া, দারুচিনি, রসুন বাটা দিতে হবে। হালকা রং ধরলে ১ লিটার পানিতে পরিমাণ মতো লবন, হলুদ গুলে দিন। এবার ডাল আর ফুলকপি ঢেলে দিতে হবে। ফুটতে থাকা ডালে হালকা চিনি, কাঁচামরিচ চেরা দিতে হবে। একটু পর দুই চামচ ঘি দিয়ে অল্প আঁচে কড়াইয়ের মুখ ঢেকে দিন। কিছুক্ষণ পর নামিয়ে আনলেই হবে।

Share This Post

Post Comment