ভাতের মাড়ের উপকারিতা

ভাতের মাড়ের উপকারিতা

ভাতের মাড়ের উপকারিতা

শরীরে দেবে বল-শক্তি, ত্বক হবে আরও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল, কেশ হবে উজ্জ্বল, এত গুণ এই ভাতের মাড়ে। কেবল চীন দেশের আদি রেসিপি নয়, এদেশেও অনেকে একে ব্যবহার করেন খাদ্য হিসেবে। যদিও গোখাদ্য হিসেবেই এর খ্যাতি। পশ্চিমা বিশ্বেও এর খ্যাতি বাড়ছে।

দুটি সস্তা ও সহজ উপকরণ : চাল ও জল ব্যবহার করে সুস্থ শরীর ও সুন্দর ত্বক পেতে কে না চায়। চাল ধোয়া জল নয় কিন্তু; একে ব্যবহার করতে পারেন, তবে এত সুফল পাবেন না।

ভাতের মাড় হলোবেশি হিতকর। দুপুরের ভাত রান্নার সময় যতটুকু জল দেন এর চেয়ে বেশি জল দেবেন। ভাত হয়ে গেলে মাড়টা ঢেলে ফেলবেন একটি পাত্রে। ফেনে থাকবে চাল থেকে আসা অনেক হিতকারী উপকরণ। ভাতের গরম মাড়ও খেতে পারেন, খেতে পারেন ঠাণ্ডা করেও।

এ থেকে পাবেন :* শক্তি * পেটের অসুখ, তরল মল উপশমে। * ক্যান্সার রোধেও উপকারী। * দেহতাপ ও নিয়ন্ত্রণ। * এছাড়া এটি কোষ্ঠবদ্ধতাও দূর করে।

সৌন্দর্যবর্ধর্ক হিসেবে : ভাতের মাড় দিয়ে মুখ ধুলে ত্বক হবে কোমল। * চমৎকার টনিক। * মুখের ত্বকের লোমকূপ খুলে দেয়। * ভাতের মাড় দিয়ে চুল ধুলে চুল হবে উজ্জ্বল।

Share This Post

Post Comment