স্বাদ বদলে টক-ঝাল আচারি মাংস

স্বাদ বদলে টক-ঝাল আচারি মাংস

এই গরমে মুখে কিছুর স্বাদই ভালো লাগে না। সাধারণ খাবারও এই গরমে মুখে রোচে না। তবে টক জাতীয় খাবার খেতে কিন্তু খারাপ লাগে না। তাই অনেকে খাবারের সাথে আচার জাতীয় খাবার রাখেন। কিন্তু মাংসের সাথে আচার জিনিসটি যদি দেয়া হয় তাহলে একটু অন্যরকম দেখায়। তাই এক কাজ করুন না, মাংসের স্বাদটাতেই নিয়ে আসুন আচারি ভাব। মুখের স্বাদ বদলাতে চাইলে রেঁধে ফেলুন টক-ঝাল আচারি মাংস। জেনে নিন খুব সহজ রেসিপিটি।

উপকরণঃ

– ৩০০ গ্রাম মাংস (গরু/খাসি/মুরগি)
– ২ টেবিল চামচ সরিষার তেল
– আধা ইঞ্চি দারুচিনি
– দেড় টেবিল চামচ জিরা
– ২ টি এলাচ
– ৩-৪ টি পেঁয়াজ মাঝারি আকারে কুচি
– ২ চা চামচ রসুন বাটা
– ২ চা চামচ আদা কুচি
– দেড় চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
– ৩/৪ টি লবঙ্গ
– ১ চিমচি জায়ফল ও জয়ত্রী
– ২ টি শুকনো মরিচ
– ১ টি গোটা লেবুর রস
– আধা কাপ পানিতে সামান্য তেতুল গোলানো
– ৩ কাপ পানি
– লবণ স্বাদমতো
– ঝাল বুঝে কাঁচা মরিচ ফালি
– ধনে পাতা কুচি (ইচ্ছা)
– দেড় চা চামচ রাঁধুনি সজ

পদ্ধতিঃ

  • – একটি বড় প্যানে সরিষার তেল গরম করে নিন। এরপর এতে দিন দারুচিনি, জিরা, লবঙ্গ, এলাচ এবং পেঁয়াজ কুচি। ভালো করে নেড়ে নিন।
  • – এরপর দিন আদা বাটা, রসুন বাটা এবং বাদামী হওয়া পর্যন্ত নেড়ে ভাজুন। তারপর এতে যোগ করুন হলুদ গুঁড়ো, জায়ফল-জয়ত্রী, লবণ, শুকনো মরিচ। ভালো করে নেড়ে মসলা কষে এলে এতে দিন লেবুর রস ও তেতুল গোলানো পানি। আরও আধা কাপ পানি দিয়ে ফুটতে দিন।
  • – পানি ফুটে উঠলে এতে মাংস দিয়ে দিন এবং ৫-৭ মিনিট নেড়ে মসলায় ভালো করে মাখিয়ে নিন মাংস। আরও ২ কাপ পানি দিন এবং ফুটে দিন।
  • – ঝোল ফুটে উঠলে প্যানের ঢাকনা ঢেকে মাঝারি আঁচে রান্না করতে থাকুন। মাংস সেদ্ধ হয়ে এলে উপরে কাঁচামরিচ ফালি এবং রাঁধুনি সজ দিয়ে ঢেকে দিন।
  • – ৫ মিনিট পর চুলার আঁচ বন্ধ করে নামিয়ে পরিবেশন পাত্রে ঢেলে উপরে ধনে পাতা কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন টক-ঝাল ‘আচারি মাংস’।

Share This Post

Post Comment