ঘন ঘন হাই তোলা থেকে মুক্তির উপায়!

ঘন ঘন হাই তোলা থেকে মুক্তির উপায়!

প্রতিদিনই নানা সময়ে নানা কারণে হাই তুলে থাকি আমরা। কখনো কখনো কোনো কাজে বিরক্ত হলে, কখনো বা অত্যন্ত ক্লান্ত বোধ করলে আমরা হাই তুলে থাকি।

আর সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ কাজের মাঝে হলে, বা কারো সামনে হলে সম্মান নিয়ে টানাটানি হতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, হাই তোলার পিছনে নির্দিষ্ট কারণ রয়েছে। নানা শারীরিক সমস্যায় আমরা অজান্তে হাই তুলে থাকি। ঘনঘন হাই তোলা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো নয়। জেনে নিন কাজের সময়ে ঘন ঘন হাই তোলা থেকে বিরত থাকার উপায়।

উঠে হেঁটে আসুন:
অনেক সময়ে বোর হওয়া থেকে বাঁচতে আমরা হাই তুলি। তাতে সামনে থাকা ব্যক্তি বা একাধিক মানুষ বিরক্ত হন। কাজের ফাঁকে বা মিটিংয়ের মাঝে হাই উঠতে থাকলে একটু সময় চেয়ে নিয়ে উঠে যান। একটু হেঁটে এসে, চোখে-মুখে পানি দিয়ে এসে কাজে বসুন।

পানি খান:
ক্লান্ত থাকলে অনেক সময়ে লম্বা লম্বা হাই উঠতে থাকে। এমন দেখলে বেশি করে পানি খান। শরীর ডিহাইড্রেটেড হয়ে গেলে এমন হয়। পানি খেলে উপকার পাবেন।

লম্বা শ্বাস নিন:
অনেক সময়ে অক্সিজেনের অভাবে হাই ওঠে আমাদের। পানি খাওয়ার পাশাপাশি লম্বা লম্বা শ্বাস নিলে তা কমে যায়। কিছুক্ষণ শ্বাস নিয়ে তা চেপে রেখে ছেড়ে দিন। এতে শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে।

হাই তোলা ব্যক্তিদের এড়িয়ে চলুন:
হাই অত্যন্ত ছোঁয়াচে। এর বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা অজানা রয়েছে। তবে এমন ব্যক্তিদের এড়িয়ে চললেই ভালো হবে। কাউকে হাই তুলতে দেখলেই সরে যান। কিছুক্ষণ পরে ফিরে আসুন, ফল পাবেন।

হার্টের চিকিৎসক দেখান:
হার্ট ও ফুসফুসের সমস্যা থাকলে ঘন ঘন হাই তোলার সমস্যা হয়। এক্ষেত্রে বেশি সমস্যা হচ্ছে বুঝলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Share This Post

Post Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.