চা: সুস্থ্যতার চাবিকাঠি

চা: সুস্থ্যতার চাবিকাঠি

সুদূর চীন থেকে ইংরাজরা যখন এদেশে চা নামক পাতার পানীয় সুখ নিয়ে এল তখন তারাও বোধহয় জানত না বঙ্গ জীবনে কী অপার সুখের সন্ধান দিল তারা। এতদিন চায়ের মনভোলানো স্বাদে যদি আপনি মাতোয়ারা হয়ে থাকেন এবার তাহলে তার গুণ গুলোর সঙ্গেও পরিচিত হয়ে নিন।আসুন জেনে নেই এর গুনাগুন সম্পর্কে।

হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকের সম্ভাবনা কমাতে চাঃ 

সম্প্রতি একটি গবেষণায় উঠে এসেছে দিনে মাত্র তিন কাপ চা ম্যাজিকের মত বহু গুণ কমিয়ে দেয় হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকের সম্ভাবনা। শুধু তাই নয়, দাঁত ক্ষয় রোধ করে। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতেও চায়ের জুড়ি মেলা ভার।

ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধে চাঃ

লাল চায়ের (দুধ, চিনি ছাড়া) অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ক্ষমতা সুস্থ রাখে হার্ট। এমনকী চিনি মেশানো পরও চা তার গুণাবলী মোটেও হারিয়ে ফেলে না। মাড়ি ও দাঁতের পক্ষে ক্ষতিকর দুই ধরনের ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে সেই চা।

ওজন নিয়ন্ত্রণে চাঃ 

দিন রাত মোটা হওয়ার আতঙ্ক যাদের তারা করত তাদের জন্যও সুখবর। ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখতেও এই গরম পানীয়ের জুরি মেলা ভার।

চায়ের মধ্যে ফ্লাভনয়েড নামের যে উপাদান ফ্যাট বার্নিংয়ে (চর্বি গলাতে) সাহায্য করে। এমনকি কমিয়ে দেয় শরীরের ফ্যাট শোষণের ক্ষমতাও।
হয়তো অনেকেই নিয়মিত দুইবেলা চা পান করেন, তবে এতো গুণের কথা শুনে বাড়িয়ে দেবেন নাকি আরো এক কাপ!

Share This Post

Post Comment