স্বাস্থ্যকর পানীয়

স্বাস্থ্যকর পানীয়

এ সময় পানির অভাব পূরণ করা অত্যাবশ্যক। দেহে পানির ভারসাম্য বজায় না থাকলে নানা রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই প্রত্যেকেরই উচিত পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি ও পানীয় গ্রহণ করা। আর পানীয় যদি এমন হয়, যা স্বাস্থ্যকর, তবে তো কোন কথাই নেই। আসুন জেনে নেই সেই সব পানীয় সম্পর্কে, যেগুলো আপনার তৃষ্ণা নিবারণের পাশাপাশি আপনার দেহে পানির ভারসাম্য বজায় রাখবে।

আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের এমন পানীয়ের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবে যেগুলো আপনাদের রাখবে সুস্থ এবং ফিট।

১/ দই-টমেটোর শরবতঃ

টমেটোর পুষ্টিগুণ স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এর ভিটামিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট নাস্তা বা নাস্তার বিকল্প হিসেবে অনবদ্য। স্বাস্থ্যকর টমেটোর শরবত বানাতে এক কাপ টক দইয়ের সাথে কয়েক ফোঁটা টমেটোর রস এবং স্বাদের জন্য অল্প লবণ মিশিয়ে নিন। ব্যস,হয়ে গেল মজাদার দই-টমেটোর শরবত; যা আপনাকে রাখবে দিন ভর চাঙ্গা।

২/ দুধ-চকলেটের পানীয়ঃ

চকলেটের নাম শুনে ভয় পাবেন না। জি হ্যাঁ, চকলেট-ও আপনার মেদ কয়ামতে সাহায্য করতে পারে; যদি তা সঠিক উপায়ে গ্রহণ করা হয়। এক গ্লাস দুধের পানির সাথে কোকোয়ার নির্যাস মিশিয়ে নিন। তারপর একে ভালো মত নাড়ুন, যতক্ষণ না উপাদান দুটো একত্রে মিশে যায়। এদের মিশ্রণ তৈরি করে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা সাহায্য করে অতিরিক্ত মেদ পোড়াতে।

৩/ মিশ্র ফলের শরবতঃ

ঘরে তৈরি পানীয়ের মধ্যে এটাই সবচেয়ে সহজ। আপনার পছন্দ সই মৌসুমী ফল যেমন – আপেল, তরমুজ, আঙ্গুর, আনার, আনারস ইত্যাদি নিন,সাথে মেশান টক দই বা দুধের পানি। তৈরি হয়ে গেল সুস্বাদু ফলের শরবত, যাতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল।

উপরোক্ত পানীয় সমূহ ঘরে বসেই তৈরি করুন; যাতে অতিরিক্ত প্রিসারভেটিভ বা কৃত্রিম রঙ থাকবে না বলে আপনার ও আপনার পরিবারের স্বাস্থ্য রক্ষায়ও রাখবে কার্যকর ভূমিকা ।

Share This Post

Post Comment