ছোট মটরশুটির দারুণ পুষ্টিগুণ

ছোট মটরশুটির দারুণ পুষ্টিগুণ

সৌখিন রান্নাতে মটরশুটির ব্যবহার হবে না তা কি হয়। পোলাও, মাছ ভুনা, রোস্ট, নুডুলস, রোলসহ অনেক খাবারে মটরশুটির ব্যবহার চলে। ছোট দানার এই ডাল জাতীয় খাবারটিতে আছে অনেক পুষ্টিগুণ। প্রতি ১০০ গ্রাম মটরশুটিতে পাওয়া যায় প্রায় ৮০ থেকে ১০০ কিলোক্যালরি, কার্বোহাইড্রেট ১৪.৫ গ্রাম, ফ্যাট ০.৫ গ্রাম ও প্রোটিন পাওয়া যায় ৫.৪ গ্রাম। এছাড়া ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, ভিটামিন সি, ফলিক অ্যাসিড, বিটাক্যারোটিন, ভিটামিন এ, ফসফরাস, জিঙ্ক, ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স থাকে। সামান্য পরিমাণে ভিটামিন কে-ও থাকে মটরশুটিতে। ছোট মটরশুটিতে থাকা এসব উপাদান আপনার শরীরকে দারুণভাবে সুরক্ষা দিতে সক্ষম। আসুন জেনে নেয়া যাক মটরশুটির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে-

– মটরশুটিতে বেশ ভালো পরিমাণে খাদ্যআঁশ থাকায় পেট পরিস্কার রাখে ও কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে।

– নিমমিত মটরশুটি খেলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়।

– অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে এই সবজি দারুণ কাজ করে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। হৃদরোগ প্রতিরোধেও দারুণ ভূমিকা রাখে।

– মটরশুটি টাইপ-২ ডায়াবেটিস রুখতে সরাসরি কাজ করে।

– মটরশুটিতে থাকা পর্যাপ্ত ভিটামিন কে শরীরে হাড় শক্ত করতে খুব কার্যকরী।

– ফলিক অ্যাসিড থাকায় প্রসূতি মায়েরা মটরশুটি খেতে পারেন।

– ত্বকের জন্যও মটরশুটি খুব উপকারী। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়।

– মটরশুটি চোখের দৃষ্টিশক্তিও বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে।

– মটরশুটিতে থাকা নিয়াসিন রক্তে প্রবাহিত ক্ষতিকর কোলেস্টেরল দূর করে উপকারী কোলেস্টেরলের পরিমান বাড়িয়ে দেয়।

Share This Post

Post Comment