স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ফ্যাশন

স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ফ্যাশন
105
আমরা প্রায়ই জুতা, কাপড় কিংবা অন্তর্বাস নিয়ে অস্বস্তিতে পড়ি, যদি সেগুলো আমাদের স্বাভাবিক আরাম দিতে না পারে। অস্বস্তিকর পোশাকে দীর্ঘসময় থাকার মতো যন্ত্রণার আর কিছু থাকতে পারে না। এই রকম কিছু ফ্যাশনের বিষয় আছে যা হয়তো এখন আমাদের অস্বস্তি দিচ্ছে না কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর প্রভাব রাখছে। আসুন জেনে নেই এমন চারটি অস্বাস্থ্যকর ফ্যাশন চর্চা সম্পর্কে।

১। খুব আঁটশাট পোশাক পরিধান:

হয়তো আঁটশাট পোশাক আপনার লুকে এক ধরণের আবেদন আনে। তবে এটি আপনার রক্ত সঞ্চালন এবং হজমকার্যক্রমে বাধার সৃষ্টির করছে। আঁটশাট পোশাক হয়তো আপনাকে জিরো ফিগার দেখাতে সাহায্য করবে, তবে আর একটু ঢোলা পোশাক কোন মতেই আপনার সৌন্দর্যকে কম প্রকাশ করবে না। সাথে থাকছে স্বাস্থ্যের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে মুক্তি।

২। হাই হিল প্রতিদিন, সারাক্ষণ:

হাই হিলে আপনাকে খুবি আবেদনময়ী দেখায় এতে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু এর মূল্য দিতে হচ্ছে আপনার পায়ের পাতাকে। না, বলছি না আপনাকে হাই হিল পরা বাদ দিয়ে দিতে। তবে অফিসে আপনার বসবার ঘরে, বাসায় কিংবা গাড়িতে আরাম দায়ক ফ্ল্যাট সোলের জুতা পরতে পারেন। আর খুবি ভালো হয় কয়েক মাস অন্তর অন্তর যদি ফুট ম্যাসেজ করিয়ে নেন।

৩। ভারী ব্যাগ বহন:

অনেকেই বিশাল ব্যাগ নিয়ে তাতে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে ঘুরে বেড়ান। এটাও ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে আপনার ঘাড়ে ও কাঁধে। তাই যতটা পারা যায় কম বোঝা বহন করুন। আপনার কাঁধ ও ঘাড়কে একটু স্বস্তি দিন।

৪। অতিরিক্ত ক্যামিকেল যুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার:

অনেকেই না জেনে নিম্নমানের নানা রঙের প্রসাধনী ব্যবহার করেন। এইগুলো আপনার ত্বক ও শরীরের জন্য ক্ষতিকর। আপনার ত্বক বা শরীরের কোন ক্ষতি করবে না এমনটা নিশ্চিত হয়েই ভালো মানের পন্য ব্যবহার করুন।
স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর এমন ফ্যাশন চর্চাগুলো বাদ দেয়ার চেষ্টা করুন। স্বাস্থ্যের কথা আগে ভাবতে হবে। আর সুস্থভাবে বেচে থাকুন।

Share This Post

Post Comment