দুধের ৭ টি অজানা ব্যবহার

দুধের ৭ টি অজানা ব্যবহার

71

ক্যালসিয়াম এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ দুধ স্বাস্থ্যের জন্য কতোটা উপকারী তা বলাই বাহুল্য। যে কোনো বয়সে সুস্বাস্থ্যের জন্য পুষ্টিকর দুধ খাওয়া অনেক বেশি কার্যকরী। দুধ খেলে নানান ধরণের রোগ বালাইয়ের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। কিন্তু দুধের ব্যবহার শুধুমাত্র খাওয়া এবং এর পুষ্টিগুনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয় এর রয়েছে আরও অনেক ব্যবহার।

হ্যাঁ, সর্বগুণ সম্পন্ন এই দুধের রয়েছে কিছু অদ্ভুত ব্যবহার যার সম্পর্কে হয়তো আমরা অনেকেই জানি না। দুধের এই ব্যবহারগুলো সমাধান করবে দৈনন্দিন কিছু সমস্যাও।

 

1. অনেকদিন ফ্রিজে রাখা মাছের স্বাদ ফিরিয়ে আনতে

অনেক সময়ই ডীপ ফ্রিজে কাঁচা মাছ রয়ে যায়। বেশিদিন ফ্রিজে থাকার ফলে মাছের স্বাদ পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যায়। খেতে শুকনো লাগে এবং গন্ধ বেশি লাগে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে দুধ।
ফ্রিজ থেকে মাছ বের করে ঠাণ্ডা ছাড়িয়ে মাছ দুধ মিশ্রিত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। তারপর রান্না করুন। দেখবেন মাছের স্বাদ ফিরে এসেছে এবং গন্ধও নেই একেবারে। মরিচা দূর করতে দুধ

2. অনেক সময় ব্যবহার্য ধাতব জিনিসের ওপর মরিচা পরে যায়। দেখতে বিশ্রী দেখায় বলে অনেকেই জিনিষটি ব্যবহার করেন না। কিন্তু এই মরিচা সহজেই দূর করা যায় দুধের সাহায্যে। অর্ধেক কাপ দুধ নিয়ে এতে সামান্য ভিনেগার বা লেবুর রস দিয়ে টক করে নিন। এরপর একটি কাপড় এই দুধে ভিজিয়ে মরিচা পরা জিনিষ ঘষে নিন। দেখবেন মরিচা দূর হয়ে গেছে। এছাড়া এই টক দুধ কাঠের আসবাবপত্র পলিস করতেও বেশ কার্যকরী। কাপড়ে কালির দাগ তুলতে

3. অনেক সময় অসাবধানতাবশত কাপড়ে কালির দাগ পড়ে যায়। যা সাধারণ ডিটারজেন্ট বা সাবান দিয়ে তোলা সম্ভব হয় না। কিন্তু দুধের ব্যবহার কালির দাগ দূর করবে নিমেষেই। কালির দাগের ওপর দুধ দিয়ে ভিজিয়ে সারারাত রেখে দিন। পরে ভালো করে ঘষে কাপড় ধুয়ে নিন। দেখবেন কালির দাগ একটুও নেই। পোকামাকড়ের কামড়ের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে

4. পোকামাকড় কামড়ালে যাদের অ্যালার্জির সমস্যা আছে তাদের ভয়ানক যন্ত্রণা শুরু হয়। এই যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেবে দুধ। দুধ একটি প্রাকৃতিক ময়েসচারাইজার। দুধ, সামান্য পানি এবং ১ চিমটি লবন মিশিয়ে নিয়ে মিশ্রণটি পোকামাকড়ের কামড়ের ওপর লাগান। এর এনজাইম দ্রুত জ্বলুনি কমিয়ে অ্যালার্জির হাত থেকে রক্ষা করবে। শেভিং ক্রিমের বিকল্প হিসেবে দুধ

5. সকালে উঠে দ্রুত তৈরি হয়ে যেতে হবে কাজে বা মিটিং কিংবা ইন্টারভিউয়ে অথচ ভুলে গিয়েছিলেন শেভ করার কথা। শেভ করতে যেয়ে শেভিং ক্রিম পাচ্ছেন না। বাড়িঘর মাথায় তোলার দরকার নেই। রান্নাঘরে গিয়ে গুঁড়ো দুধ বের করে নিন। সামান্য গুঁড়োদুধ নিয়ে এতে পেস্টের মত তৈরি করা যায় এমন ভাবে পানি দিন। এই পেস্টটি দিয়ে শেভ করুন। সমস্যার সমাধান।
6. চিনামাটির পাত্রের ফাটা বন্ধ করতে।
শখের চিনামাটির কাপ বা পাত্রটিতে চিড় ধরেছে? ফাটা দাগের জন্য মনে দুঃখে ফেলে দিতে যাচ্ছেন পাত্র বা কাপটি? ভুলেও ফেলে দেবেন না। বাসায় বসে অনায়েসেই এই কাপ বা পাত্রের ফাটা বা চিড় দূর করতে পারেন দুধের সাহায্যে। কাপ বা পাত্রটি একটি বড় পাত্রে রেখে দুধ দিয়ে ডুবিয়ে দিন। এরপর কাপ সহ দুধ চুলায় জ্বাল দিতে থাকুন। দুধ ফুটে উঠলে চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন। পরে কাপ বা পাত্রটি দুধ থেকে তুলে দেখবেন
ফাটা দাগ বা চিড় দূর হয়ে নতুনের মত হয়ে গেছে। দুধের প্রোটিন চিনামাটির সাথে মিশে যেয়ে এই ফাটা অংশ জোড়া লাগতে সাহায্য করে। বাগানের মাটি উর্বর করতে দুধ

7. শখের বাগানে কোন ফুল বা ফল কিছু হচ্ছে না? মাটি অনেক বেশি শুষ্ক হয়ে গেছে? এই সমস্যা সমাধান করবে দুধ। ১:৪ অনুপাতে দুধ আর পানি মিশিয়ে বাগানের মাটিতে ছিটিয়ে দিন। মাটির উর্বরতা বৃদ্ধি পাবে।

Share This Post

Post Comment