৪টি হেয়ার মাস্ক চুল পরা কমাতে সাহায্য করে৷

৪টি হেয়ার মাস্ক চুল পরা কমাতে সাহায্য করে৷

এই ঋতুতে চুলের জন্য চাই বাড়তি পরিচর্যা।

শুষ্ক চুলের জন্য ব্যবহার করতে পারেন নারিকেল ও ক্রিম থেকে তৈরি চুলের মাস্ক। আর ক্ষতিগ্রস্ত এবং দুর্বল চুলের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে ‘বানানা ক্রিম মাস্ক’।

চুল পড়ার বিরুদ্ধে লড়তে কয়েকটি চুলের মাস্ক তৈরির পদ্ধতি জানিয়েছেন ভারতের স্টার স্যালন অ্যান’ স্পা’র কর্ণধার আশমিন মুঞ্জাল।

নারিকেল ও ক্রিম মাস্ক

শুষ্ক এবং রুক্ষ চুলের জন্য এই মাস্ক সবচাইতে উপকারী। এর ময়েশ্চারাইজিং উপাদান চুল করে কোমল এবং ঝলমলে। পাশাপাশি চুলকে করে ‘বাউন্সি’। ঘরে সহজেই তৈরি করা যায়।

উপকরণ: নারিকেল তেল এবং অলিভ অয়েল।

পদ্ধতি: উপকরণ দুটি ভালোভাবে মিশিয়ে আলতোভাবে চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত প্রয়োগ করতে হবে। এরপর চুল ‘শাওয়ার ক্যাপ’ দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। এভাবে এক ঘণ্টার বেশি সময় রেখে হালকা ভেষজ শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মাস্কটি চুল কোমল ও ঝলমলে করার পাশাপাশি পুষ্টি যোগাবে।

বানানা ক্রিম মাস্ক

ক্ষতিগ্রস্ত ও দুর্বল চুলে নতুন জীবন দান করবে এই মাস্ক। কলা একটি প্রাকৃতিক উপাদান যা চুলের গোড়ার ক্ষতি রোধ করার মাধ্যমে শক্তিশালী করে তোলে। এটি চুলের দুর্বল গোড়ায় শক্তি যোগায় এবং শক্ত হয়ে বেড়ে উঠতে সাহায্য করে। এছাড়া এতে থাকা আয়রন ও ভিটামিন চুলে যোগায় পুষ্টি।

উপকরণ: একটি কলা এবং এক টেবিল চামচ মধু।

পদ্ধতি: প্রথমে একটি অতিরিক্ত পাকাকলা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এরপর এতে এক টেবিল-চামচ মধু মিশিয়ে চুলে প্রয়োগ করতে হবে। বিশেষ করে চুলের গোড়ায়। মাস্কটি ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই মাস্ক পরে ব্যবহারের জন্য ফ্রিজে সংরক্ষণ করা যেতে পারে।

ওটমিল হেয়ার মাস্ক

যারা তৈলাক্ত মাথার ত্বক, খুশকি, প্রদাহ এবং জ্বালাপোড়ায় ভুগছেন তাদের জন্য এই মাস্ক উপকারী। এটি মাথার ত্বকের বাড়তি তেল সরিয়ে পুষ্টি যোগায়।

এছাড়াও এটি চুলের খুশকি দূর করা এবং চুলের গ্রন্থিগুলোকে রক্ষা করার মাধ্যমে চুল বেড়ে উঠতে সাহায্য করে।

উপকরণ: এক টেবিল-চামচ ওটমিল বা জইচূর্ণ। এক টেবিল-চামচ টাটকা দুধ। এক টেবিল-চামচ আলমন্ড অয়েল।

পদ্ধতি

সবগুলো উপকরণ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করতে হবে। প্যাকটি ব্যবহারের আগে জটমুক্ত চুল নিশ্চিত করা জরুরি। এই প্যাক চুলে আলতোভাবে লাগিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। ভালো ফলাফলের জন্য প্যাকটি ধুয়ে ফেলতে লেবুর রস মিশ্রিত পানি ব্যবহার করতে পারেন।

জবা ফুলের মাস্ক

চুলের গোড়া দুর্বল হয়ে যাওয়া কিংবা চুল ফেটে যাওয়ার সমস্যা থাকলে এই প্যাক বেশ উপকারী।

উপকরণ: ৬,৭টি জবা ফুলের পাতা। এক কাপের এক চতুর্থাংশ অলিভ ওয়েল (এক্সট্রা ভার্জিন)। দুই টেবিল-চামচ কাঁচাদুধ।

পদ্ধতি: সারারাত ধরে জবা ফুলের পাতা ভিজিয়ে রাখতে হবে। পরে অলিভ ওয়েল এবং কাঁচা দুধের সঙ্গে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। প্যাকটি আলতোভাবে চুল মাখিয়ে ২০ থেকে ২৫ মিনিট রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

Share This Post

Post Comment