শীতে নরম ও কোমল ত্বক পাওয়ার কিছু সহজ উপায়!

শীতে নরম ও কোমল ত্বক পাওয়ার কিছু সহজ উপায়!

শীতে ত্বক শুষ্ক ও ফ্যাকাসে হয়ে যায়। তাই শীত এলেই ত্বকের যত্ন নিতে হয় একটু বেশি। শিশুর ত্বক অনেক নরম ও কোমল থাকে এটা আমরা সবাই জানি। এই শীতে শিশুর ত্বকের মতোই নরম কোমল ত্বক পেতে চাইলে ত্বকের আদ্রতা যাতে ঠিক থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আপনি ত্বক নরম রাখার ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। তবে ঘরোয়া ভাবে প্রাকৃতিক কিছু উপাদান দিয়েও আপনি রেশমি মসৃণ ত্বক পেতে পারেন। আসুন জেনে নেই সেই উপাদান ও তাদের ব্যবহার বিধি।

১। অলিভ অয়েল

একটি ছোট পাত্রে ৩ টেবিলচামচ অলিভ অয়েল নিয়ে এর সাথে ১ টেবিলচামচ নারিকেল তেল দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এই তেলের মিশ্রণটি থেকে কিছুটা তেল এক হাতের তালুতে নিয়ে আরেক হাতের তালু দিয়ে ঘষতে থাকুন যতক্ষণ না পর্যন্ত হাতের তালু গরম হয়। তারপর হাত দুটি দিয়ে মুখে তেল ম্যাসাজ করতে থাকুন। প্রতিদিন এভাবে করুন।

২। অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা জেল ত্বককে শীতল ও মসৃণ করে। সতেজ অ্যালোভেরা জেল দিনে দুই বার ত্বকে লাগান। কিছুক্ষণ রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৩। দুধ ও মধু

দুধের সাথে মধু মিশিয়ে লোশন তৈরি করুন এবং সারা শীতে এটা আপনার তকে লাগান। দুধের পুষ্টি উপাদান ত্বকে পুষ্টি সরবরাহ করে। মুখ ও হাতে এই লোশন লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বক নরম ও কোমল হবে।

৪। কফি

আপনি জানেন কি কফি হচ্ছে ত্বকের জন্য সবচেয়ে ভালো এক্সফলিয়েটর? গোসলের সময় কফির গুঁড়ার সাথে সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে সারা শরীরে লাগান এবং উপরের দিকে টেনে টেনে ম্যাসাজ করুন। এতে সমস্ত শরীরের মরা চামড়া উঠে আসবে।

৫। ফ্রুট মাস্ক

পাকা কলা ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। কলা ভিটামিন ও মিনারেলে সমৃদ্ধ যা ত্বককে তরতাজা করে। পেঁপের মাস্ক ও ত্বকের জন্য অনেক ভালো যা ত্বকের ময়লা দূর করে ত্বককে আদ্রতা প্রদান করে।

টিপস :

· গোসল করার পর শরীরে ময়েশ্চারাইজার লাগান। পানি শরীরের তেল দূর করে দেয় ফলে ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। তাই তখন ময়েশ্চারাইজার লাগানো জরুরী এতে ত্বক নরম থাকে।

· ত্বককে শুষ্ক ও রুক্ষ করার জন্য সূর্যের তাপ অনেক বড় কারণ। তাই ত্বককে ভালো রাখার জন্য ত্বককে সূর্যের তাপ থেকে রক্ষা করুন। সান প্রোটেকশন লোশন ব্যবহার করুন।

· ত্বককে আদ্র রাখার জন্য প্রচুর পানি ও তরল খাবার গ্রহণ করুন।

· সপ্তাহে একদিন এক্সফলিয়েট করুন, প্রতিদিন করলে ত্বক শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যেতে পারে।

· মুখে গরম ভাপ নিন। এতে ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল হয়।

· গরম পানি দিয়ে গোসল করলে ত্বকের আদ্রতা নষ্ট হয়। তাই শীতে কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল করুন।

· ভিটামিন ও মিনারেল সমৃদ্ধ খাবার খান যাতে শরীর আভ্যন্তরীণ ভাবেও আদ্রতা রক্ষা করতে পারে।

· এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার যেমন- বীজ, আখরোট, লবঙ্গ, সয়াবিন, ফ্যাটি মাছ, টফো, পাতাকপি, লাউ ও শীতের সবজি খান যাতে শীতেও ত্বক ভালো থাকে।

Share This Post

Post Comment