তৈলাক্ত ত্বকের নারীদের জন্য অপরিহার্য ৫টি পণ্যঃ

তৈলাক্ত ত্বকের নারীদের জন্য অপরিহার্য ৫টি পণ্যঃ

তৈলাক্ত ত্বকে থাকে নানা সমস্যা। তারা চাইলেও ব্যবহার করতে পারে না সব ধরণের পণ্য। অনেক সাবধানতা অবলম্বন করতে হয় তাদের যেকোন পণ্য ব্যবহারের আগে। কিন্তু কিছু পণ্য আছে যা শুধু তৈলাক্ত ত্বকের জন্য তৈরি করা হয়েছে। আসুন জেনে নিই, শুধু তৈলাক্ত ত্বকের জন্য ব্যবহৃত সেরা পাঁচ পণ্য।

১। প্রাইমার তৈলাক্ত ত্বকের মেকআপের সবচেয়ে বড় সমস্যা হল কিছুক্ষন পর মেকআপ গলে যায়। কিন্তু প্রাইমার ব্যবহারে এই সম্যসা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। আপনাকে যদি সারাদিনের জন্য মেকআপে থাকতে হয় তবে অব্যশই প্রাইমার ব্যবহার করা উচিত। এটি কালো দাগ, ব্রণের দাগ, চোখের নিচের কালি ঢাকার জন্য প্রাইমার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। প্রাইমার আপনার ত্বকের তেলতেলে ভাব দূর করে ত্বকে মেকআপ ভালভাবে বসিয়ে দেয়।

২। ক্লিনজার বেশিরভাগ মানুষ ত্বক পরিষ্কারের জন্য যেসকল ক্লিনজার ব্যবহার করে যেগুলো ত্বকের সকল তেল শুষে নিয়ে ত্বককে করে তোলে রুক্ষ ও মলিন।সাধারণত বাজারে যেসকল ক্লিনজার পাওয়া যায় সেগুলো ত্বকের সম্পূর্ণ তেল শুষে নেয়। ফলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। বাজারের ক্লিনজার ব্যবহার না করে ঘরে তৈরি করে নিতে পারেন ক্লিনজার যা ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নিবে কিন্তু ত্বককে শুষ্ক করবে না।

৩। স্টিমার তৈলাক্ত ত্বকের জন্য স্টিম করাটা অনেক বেশি জরুরি। এটি আপনার ত্বকের ছিদ্রগুলো খুলে দেয় এবং ময়লা পরিষ্কার করে ত্বকের ভিতর থেকে। বাজারে বিভিন্ন ধরণের স্টিমার কিনতে পাওয়া যায় সম্ভব হলে স্টিমার কিনে নিতে পারেন। চাইলে বাসায়ও করে নিতে পারেন স্টিম। একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে সেটির ভাপ মুখে দিন।

৪। অয়েল ফ্রি কম্প্যাক্ট অয়েল ফ্রি কম্প্যাক্ট ত্বকের তেল শুষে নিয়ে ত্বককে করে তোলে স্নিগ্ধ কোমল। সাধারণত পাউডার কমপ্যাক্ট তৈলাক্ত ত্বকের জন্য বেশি ভাল। এটি ত্বকে একটি ম্যাট ভাব নিয়ে আসে। তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীরা হালকা, সহজে মিশে যায় এমন কম্প্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করা উচিত।

৫। মেকআপ সেটিং স্প্রে মেকআপ যদি আপনার ত্বকে ঠিকমত না বসে এবং তা যদি গলে যায়। তবে মেকআপ সেটিং স্প্রে ব্যবহার করা উচিত। এটি ত্বকে মেকআপ ভাল করে বসতে সাহায্য করে। এবং মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করে থাকে।

Share This Post

Post Comment