তৈলাক্ত ত্বকের উপযোগী ফ্রুট প্যাক

তৈলাক্ত ত্বকের উপযোগী ফ্রুট প্যাক

আপেলের প্যাক
আধখানা থেঁতো করা আপেলের সঙ্গে এক টেব্লচামচ লেবুর রস মিশিয়ে দশ মিনিট মতো মুখে লাগিয়ে রাখব। প্রথমে ঈষদুষ্ণ জল ও পরে ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে ফেলব।

টম্যাটোর প্যাক
টম্যাটোর রসের (জল মেশানো চলবে না) সঙ্গে অল্প ময়দা মিশিয়ে একটা প্যাক বানাতে হবে। মুখে লাগিয়ে খানিকক্ষণ রেখে দেব। শুকিয়ে এলে প্রথমে ঈষদুষ্ণ জল ও পরে ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে ফেলব।

আলুর প্যাক
একচামচ থেকে দু’চামচ আলুর রসের সঙ্গে সামান্য মুলতানি মাটি ভাল করে মেশাতে হবে। মুখে লাগিয়ে খানিকক্ষণ রেখে দেব শুকনো হওয়ার জন্য। শুকিয়ে এলে যথাক্রমে ঈষদুষ্ণ ও ঠান্ডা জলে মুখ ধোব।

কমলালেবুর প্যাক
প্রথমে কমলালেবুর খোসা গুঁড়ো করে নিতে হবে। তার সঙ্গে ভাল করে দই মেশাতে হবে। প্যাকটি মুখে মেখে মিনিট পনেরো পর ধুয়ে ফেলব। এতে ত্বক উজ্জ্বল হয়, পিগমেন্টেশন থাকলে উপকার পাওয়া যায়।

শসার প্যাক
একটা শসা মিক্সিতে ভাল করে পেস্ট করে নিয়ে, তার সঙ্গে আমন্ড পাউডার, দু’চামচ দুধ মিশিয়ে মুখে লাগাতে হবে। পনেরো-কুড়ি মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলব।

জরুরি কথা: অয়েলি স্কিনে কোনও প্যাক লাগিয়ে মুখ ধোওয়ার পর সবসময় প্রথমে ইষদুষ্ণ ও তারপর ঠান্ডা জলে মুখ ধোওয়া উচিত। কারণ, ঈষদুষ্ণ জলে মুখ ধুলে বন্ধ রোমকূপের মুখ খুলে যায়। এর ফলে ভিতরকার ময়লা বেরিয়ে আসে। এর পর রোমকূপের মুখ বন্ধ করা প্রয়োজন, যাতে নতুন করে ধুলোময়লা প্রবেশ করতে না পারে। ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে ফেললে রোমকূপের মুখ বন্ধ হয়ে যায়।

Share This Post

Post Comment