সৌন্দর্য রক্ষায় গোলাপজল

সৌন্দর্য রক্ষায় গোলাপজল
গোলাপ ফুলের নির্যাস ব্যবহারে ত্বকে ও স্বাস্থ্যের অনেক উপকারিতা লুকিয়ে আছে। বিশেষ করে প্রসাধনী হিসেবে গোলাপজলের ব্যবহার ভীষণ উপকারী। গোলাপজল আপনার ত্বককে প্রাকৃতিক ভাবে পরিষ্কার করে, এর উজ্জ্বলতা বাড়ায়,আবার আপনার খারাপ মেজাজকে নিমিশেই ফুরফুরে করে তুলতেও এটা অতুলীয়।
  • গোলাপজল ত্বকের অতিরিক্ত তেল, ময়লা ও অন্যান্য ময়লা মুছে ফেলে আপনার ত্বককে ঠাণ্ডা রাখে। এছাড়াও আপনি আপনার ফেসপ্যাকটি গোলাপজল দিয়ে তৈরি করুন। এতে ত্বকের গাঢ় দাগ দূর হবে সহজেই ।গোলাপ জল দিয়ে আপনার মুখ ধুলে তা টোনার হয় হিসেবেও কাজ করে।
  • গোলাপ জল এর ফেসপ্যাক বানাতে দুই টেবিল চামচ চন্দন কাঠের পাউডার ,আধা টেবিল চামচ গোলাপ জল এবং আধা টেবিল চামচ লেবু রস দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। মুখে এই প্যাক লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • ত্বকের আদ্রর্তা বজায় রাখতে গোলাপজল এবং গ্লিসারিন একসাথে মিশিয়ে নিয়ে ব্যবহার করুন। সারা বছরই এটা আপনাকে দেবে দারুন কোমল ত্বক।
  • ক্লিঞ্জার হিসেবে ব্যবহার করতে সমান পরিমাণ মধু ও গোলাপজল মিশিয়ে নিন। দিনে একবার তুলায় লাগিয়ে মুখে ও গলায় লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে নিন।
  • স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করতে কাঠবাদামের পেস্টের সাথে গোলাপজল মিশিয়ে নিন। হাল্কা ম্যসাজ করে মুখে ঘষুন। পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার ত্বকের ছিদ্র খুলে ভেতরের ময়লা বের করে আনবে।
  • বয়সের ছাপ দূর করতে দুই টেবিল চামচ চন্দন কাঠের গুঁড়া, আধা টেবিল চামচ গোলাপ জল এবং আধা টেবিল চামচ গ্লিসারিন মেলান। প্রতিদিন ২০ মিনিটের জন্য মুখে এই পেস্ট লাগান। গ্লিসারিনের বদলে মধু ও দিতে পারেন।

দেখলেন তো, শুধু রুপ আর সুগন্ধে নয়, গোলাপ মাতিয়ে রাখতে পারে আপনার ত্বকের স্বাস্থ্য আর সৌন্দর্য খুব সহজে, ঘরে বসেই।

Share This Post

Post Comment