মুখের বিশেষ স্থানের গাঢ় কালো দাগ দূরীকরণের উপায়

মুখের বিশেষ স্থানের গাঢ় কালো দাগ দূরীকরণের উপায়

সুন্দর মসৃন ত্বক সবার কাম্য। কখনো কখনো তা হয় প্রিয়জনের কাছে আরও প্রিয় হতে, কখনো বা নিজের আত্মতৃপ্তির জন্য। সৌন্দর্য মানেই ফর্সা নয়, সৌন্দর্য মানে একটি কোমল ও মসৃন ত্বক। ত্বকের উজ্জ্বলতা সৌন্দর্য বাড়ায় দ্বিগুন। আর এই উজ্জ্বলতাকে খর্ব করে মুখের কিছু বিশেষ স্থানের কালো দাগ। যেমন চোখের নিচে উপরের কালো দাগ, মেসতা দাগসহ ইত্যাদি।

চলুন এই সৌন্দর্য খর্বকারী দাগের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার কিছু উপায় জেনে নেই।

১। চোখের কালো দাগ:
চোখ একটি আকর্ষনীয় স্থান। কথা বলার সময় মানুষের চোখ সবচেয়ে বেশি আকৃষ্ট করে। সেক্ষেত্রে চোখের কালো দাগ একটা খারাপ প্রভাব ফেলে সৌন্দর্যের বিষয়বস্তুতে। সাধারণত ঘুম কম হলে, দুশ্চিন্তা করলে চোখে কালো দাগ পড়ে। মুক্তির প্রাকৃতিক উপায় হলো:
# প্রতি দিন পরিমিত ঘুমানো।
‪#‎নিয়মিত‬ চোখের ব্যয়াম করা।
‪#‎চোখের‬ চারপাশে সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন গোল আলুর রস লাগান।
‪#‎শসার‬ রসও কার্যকরী।
‪#‎দুশ্চিন্তা‬ কম করুন।

২। মেসতা:
সাধারণত বয়স বাড়ার সাথে সাথে মেসতা বাড়ে। তাছাড়া অনেক বেশি রোদে ঘুরাঘুরির কারনেও মেসতা হতে পারে। দূরীকরণের প্রাকৃতিক উপায়:
‪#‎বাহির‬ থেকে আসার সাথে সাথেই মুখ ধুয়ে নিতে হবে ভালভাবে।
‪#‎রোদের‬ সাথে সন্ধি করতে ব্যবহার করুন সান বার্ন ক্রিম।
# পরিমিত পানি পান করুন।
‪#‎এলোভেরার‬ রস লাগান সপ্তাহে ৪-৫ দিন।
# সপ্তাহে অন্তত দুই দিন টক দই মাখুন।
‪#‎প্রয়োজনে‬ মাসে দুইবার হারবাল ফেসিয়াল করুন
# পাকা টমেটো ব্যবাহারেও ভালো ফলাফল সম্ভব।
মানুষ সৌন্দর্যের পুজারি। সৌন্দর্য রক্ষায় সচেতন হোন।

Share This Post

Post Comment