ঘরে বসে সেরে নিন Hair SPA

ঘরে বসে সেরে নিন Hair SPA

রেশমী কোমল চুল কে না চায়! চুলের ঝলমলে চেকনাই ভাব নিয়ে আসতে হেয়ার স্পার জুড়ি নেই। চুলের যত্নে হেয়ার স্পা আজকাল যে কোনো পার্লারেই করা সম্ভব। রূপ বিশেষজ্ঞদের মতে, সুন্দর চুল আর মাথার ত্বকের স্বাস্থ্যের জন্য হেয়ার স্পা করা প্রত্যেকেরই উচিৎ। আজ আমরা জানব কিভাবে  ঘরে বসে সেরে নেয় যাই  Hair SPA…

উপকরণ:
অলিভ অয়েল,

ডিপ কন্ডিশনার,

শ্যাম্পু,

হেয়ার মাস্ক,

তোয়ালে,

মোটা দাঁড়ের চিরুনি ইত্যাদি

পদ্ধতি:

একটা ছোট পাত্রে কিছুটা অলিভ অয়েল নিয়ে সেটা একটু গরম করে নিন। এর পর এই তেল ঠান্ডা করে ঈষদুষ্ণ হলে সেই তেল স্ক্যাল্পে ও পুরো চুলে ভাল করে লাগিয়ে আঙুলের ডগা দিয়ে হালকা করে সার্কুলারভাবে মাসাজ করে নিতে হবে । খেয়াল রাখবেন চুলে তেল লাগানোর সময় বেশি জোরে মাসাজ করবে্ন না। এতে সহজেই চুল উঠে যায়।

এর পর একটা তোয়ালে উষ্ণ জলে ভিজিয়ে নিয়ে জল ঝড়িয়ে নেবেন। তারপর এই তোয়ালে দিয়ে পুরো চুল ভাল করে বেঁধে রাখবে্ন। এর ফলে স্ক্যাল্পে স্টিম পাবে এবং চুলের কোষগুলিও সতেজ হয়ে উঠবে।

এইভাবে কিছুক্ষণ রাখার পর  আপনার চুলের ধরন অনুসারে শ্যাম্পু বাছাই করে চুল ধুয়ে নিন। এক্ষেত্রে কোনও হার্বাল শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে পারেন।

শ্যাম্পু করার পর চুল ধুয়ে নিয়ে কোনও ডিপ কন্ডিশনার শুধুমাত্র চুলের লেংথে ভাল করে লাগিয়ে নেবেন এবং একটা মোটা দাঁড়ের চিরুনি দিয়ে চুল হালকা করে আঁচড়ে  নেবেন। প্রতিটি চুলে ভাল করে কন্ডিশনার লাগানো যায় এবং চুল মসৃণ হয়। কন্ডিশনার লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট রাখার পর ভাল করে চুল ধুয়ে নিন।

হেয়ার মাস্ক: চুল ধুয়ে নেওয়ার পর হালকা করে শুকিয়ে নিয়ে চুলের ধরন অনুসারে কিছুটা হেয়ার মাস্ক নিয়ে স্ক্যাল্পে ও চুলে ভাল করে লাগিয়ে নেবেন। এই অবস্থায় উষ্ণ জলে ভেজানো তোয়ালে দিয়ে পুরো চুল বেঁধে ১৫- ২০ মিনিট রেখে ভাল করে চুল ধুয়ে নেবেন এবং ঝকঝকে মসৃণ চুল পেয়ে যাবেন।

হেয়ার স্পার উপকারিতা

হেয়ার স্পা করার সময় চুলের গোড়ায় তেল ম্যাসাজের কারণে ব্লাড সার্কুলেশন বাড়ে। এতে চুল নরমও হয়। এছাড়া-
১. চুল পড়া রোধ করে।
২. চুলের আগা ফাটা ও ভংগুরতা দূর করে।
৩. চুল কালার, রিবন্ডিং, পাম ইত্যাদি করতে গিয়ে কেমিক্যালস ব্যবহারের কারণে অনেকের চুল ড্যামেজ হয়ে যায়। স্পা এ ক্ষেত্রেও বেশ উপকারি।
৪. চুলের ঘনত্ব বাড়ে।

Share This Post

Post Comment