কালো চুল ধূসর হয়ে গেলে করণীয়

কালো চুল ধূসর হয়ে গেলে করণীয়

আপনার চুলের রংকে যখন কেউ ধূসর বলে, তখন কেমন লাগে? এটা নিশ্চয়ই স্বপ্নিল ধূসর নয়, চুলে সৌন্দর্য নষ্ট হয়েই এমন হয়েছে। বিশেষজ্ঞের মতে, অস্বাস্থ্যকর খাবার এবং জীবনযাপনের কারণে ২০ বা ৩০ বছর বয়সেই চুলের রং নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তবে এর সমাধান রয়েছে। এজন্যে বিশেষ যত্নের কথা শিখিয়ে দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।
দুটো পদ্ধতিতে ধূসর চুলকে আগের মতো কালো অবস্থায় আনতে পারেন। প্রথমত অন্যান্য কিছু প্রসাধন ব্যবহার করে কাজ সারতে পারেন। মাথায় সামান্য কিছু চুল ধূসর হয়ে গেলে যা করবেন তা জেনে নিন।

১. মাস্কারা : শুধু চোখের পাতাকে কালো ও বাঁকানো করতেই নয়, ধূসর চুলকে কালো করতেও মাস্কারা ব্যবহার করতে পারেন। চুলের গোড়াতে মাস্কারা লাগালেও উপকার পাবেন।

২. কাজল : ক্লাসিক কালো কাজল ব্যবহার করেও ধূসর চুল কালো করতে পারেন।

৩. লিপস্টিক : গাঢ় বাদামী লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন এ কাজে। ম্যাট রং ব্যবহার করলে দারুণ দেখা যাবে।
বাড়িতে নানা উপকরণ দিয়েও চুলের রং ফেরানো যায়। এগুলো চুলে মেসেজ করে দেখুন।

১. নারকেল তেল এবং শাকপাতা : ১০০ এমএল নারকেল তেলের সঙ্গে কয়েক গোছা শাকপাতা নিন। এগুলো একসঙ্গে গরম করুন। পাতাগুলো যখন কালো হয়ে আসবে তখন চুলো থেকে সরিয়ে নিন। পাতা থেকে তেল আলাদা করে নিন। এই তেল একটি এয়ার টাইট বোতলে সংরক্ষণ করুন। তিন সপ্তাহ পর পর তেলের বোতল রোদে দিন। মাঝে মধ্যে ব্যবহার করুন।

২. তিলের সমাধান : ১০০ এমএল তিলের তেল, ১০০ এমএল কমলার রস এবং ৫০ গ্রাম মেথির পাউডার মিশিয়ে একটি পাত্রে রেখে দিন। এই পাত্রটি রোদে দিন তিন সপ্তাহ। এবার তা ব্যবহার করা শুরু করুন।

৩. মেহেদি চিকিৎসা : মেহেদি পাউডার দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এতে কিছু পরিমাণ কফি পাউডার দিন। এতে মিশিয়ে ১ টেবিল চামচ দই এবং টেবিল চামচ লেবুর রস। এটি দুই ঘণ্টা রেখে দিয়ে চুলে মাখুন। পানি দিয়ে ধুয়ে শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।

৪. চায়ে সমাধান : চায়ের পাতা পানিতে ফুটিয়ে নিন। এরপর ঠাণ্ডা করুন। আরো কিছু পানি যোগ করে মাথায় নিন। ঘণ্টাখানিক রেখে ধুয়ে

Share This Post

Post Comment